এলি আব্রাম, হার্দিক পাণ্ডে ও এশা গুপ্তা। ছবি: সংগৃহীত

এবার হার্দিক পাণ্ডের সমালোচনায় দুই সাবেক প্রেমিকা

যারা হার্দিকের সমালোচনায় সরব হয়েছেন, তাদেরও সমর্থন জানিয়েছেন এই দুই বলিউড অভিনেত্রী।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:৩৪ আপডেট: ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:৪২
প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:৩৪ আপডেট: ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:৪২


এলি আব্রাম, হার্দিক পাণ্ডে ও এশা গুপ্তা। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) অল্প সময়ের মধ্যেই ব্যাপক তারকাখ্যাতি পেয়েছেন হার্দিক পাণ্ডে। নিজেকে পরিণত করেছিলেন ভারত ক্রিকেট দলের অপরিহার্য সদস্যে। তবে কাল হয়ে দাঁড়ালো নারীদের নিয়ে তার করা অশালীন মন্তব্য। নারী ও যৌনতার বিষয়ে অশালীন মন্তব্য করায় ডানহাতি এই অলরাউন্ডারকে সহ্য করে যেতে হচ্ছে কঠোর সমালোচনা।

এবার এই তালিকায় যোগ হয়েছে হার্দিক পাণ্ডের দুই সাবেক প্রেমিকা। নারী ও যৌনতার বিষয়ে অশালীন মন্তব্য করায় হার্দিকের সমালোচনায় সরব হয়েছেন এলি আব্রাম ও এশা গুপ্তা।

সম্প্রতি একটি অনুষ্ঠানে এলি আব্রাম বলেন, ‘আমি মাত্রই দেশে ফিরেছি। সাংবাদিকরা আমাকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করছেন। কী হয়েছে, সে বিষয়ে আমার কোনো ধারণা ছিল না। তারপর আমি নির্দিষ্ট কিছু ফুটেজ দেখি। আমার মনে হয় এটা খুবই দুঃখজনক।’

বিতর্কিত এই ঘটনায় যারা হার্দিকের সমালোচনায় সরব হয়েছেন, তাদেরও সমর্থন জানিয়েছেন এই বলিউড অভিনেত্রী। তার ভাষ্য, ‘আমি একটু অবাক হয়েছি। কারণ, যে হার্দিক পাণ্ডেকে এক সময় ব্যক্তিগতভাবে চিনতাম, সে এ রকম ছিল না। লোকজন তীব্র প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন দেখে আমার ভালো লাগছে। এই ধরনের মানসিকতা ঠিক নয়।’

এলি আব্রামের পাশাপাশি হার্দিকের সমালোচনায় নাম লিখিয়েছেন তার আরেক সাবেক প্রেমিকা এশা গুপ্তা। নারীদের প্রতি অসম্মানজনক মন্তব্য করায় হার্দিককে নোংরা ও কুৎসিত মানসিকতাসম্পন্ন ব্যক্তি বলে উল্লেখ করেছেন এই বলিউড অভিনেত্রী।

এ প্রসঙ্গে এশা গুপ্তা বলেন, ‘প্রথমত পুরুষদের সঙ্গে নারীদের তুলনা করা উচিত নয়। আমরা নারীরা সবদিক থেকেই সেরা। হার্দিক নিজের নোংরা মানসিকতার পরিচয় দিয়েছে। আফসোস, তার এই কুৎসিত মানসিকতা আমি আগে টের পাইনি।’

ঘটনার সূত্রপাত ভারতের জনপ্রিয় টিভি শো ‘কফি উইথ করন’ থেকে। সেখানে নারী ও যৌনতার বিষয়ে অশালীন মন্তব্য করে বসেন হার্দিক পাণ্ডে ও তার জাতীয় দলের সতীর্থ লোকেশ রাহুল।

এই ঘটনায় তাদের জায়গা হয়নি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডের একাদশে। শুধু তাই নয়, সিরিজ না খেলিয়ে দেশে ফিরিয়ে আনা হয় হার্দিক-রাহুলকে। এ ছাড়া ঘটনার তদন্ত করতে ছয় সদস্যের কমিটিও গঠন করেছে বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই)। তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে হচ্ছে দুজনকেই।

প্রিয় খেলা/শান্ত মাহমুদ