মাহিয়া মাহি। ছবি: শামছুল হক রিপন

নিজেকে ‘খুঁজে পাওয়ার’ মিশনে মাহি

অল্প সময়েই চলচ্চিত্রের প্রযোজকদের কাছে ‘আস্থার প্রতীক’ হয়ে উঠেছিলেন নায়িকা মাহিয়া মাহি।

মিঠু হালদার
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:২১ আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:২১
প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:২১ আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:২১


মাহিয়া মাহি। ছবি: শামছুল হক রিপন

(প্রিয়.কম) অল্প সময়েই চলচ্চিত্রের প্রযোজকদের কাছে ‘আস্থার প্রতীক’ হয়ে উঠেছিলেন নায়িকা মাহিয়া মাহি। কিন্তু হঠাৎ তার সে আস্থায় ঘটে ছন্দপতন। গত দুই বছর ঢালিউড ইন্ডাস্ট্রিতে তার অবস্থান মোটেই ‘সুখকর’ ছিল না। এ সময়ের মধ্যে কিছু চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেও তা দর্শক টানতে পারেনি। নতুন যাত্রা কীভাবে শুরু করবেন—এ নিয়ে দ্বিধা-দ্বন্দ্বে কেটে গেছে শেষ একটি বছর। বেশ কিছু পরিকল্পনা নিয়ে ২০১৮ শুরু করতে চাইলেও সেটা আর বাস্তবে রূপ পায়নি। এ বছরও নিজেকে ‘খুঁজে পাওয়ার’ মিশনে নেমেছেন মাহি।

‘খুঁজে পাওয়ার’ মিশন, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা ও বর্তমান ব্যস্ততা নিয়ে ২১ জানুয়ারি বিকেলে কথা হয় ‘অগ্নি’খ্যাত এ নায়িকার সঙ্গে।

কথার শুরুতেই নতুন বছরের পরিকল্পনা নিয়ে মাহি বলেন, ‘২০১৯ নিয়ে আমার অনেকগুলো পরিকল্পনা আছে। এটি নিজেকে নতুন করে গড়া ও নতুনভাবে দেখার বছর। যদি ১০০টা ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব পাই, সেখানে যদি শুধু একটা ছবিই ভালো হয়, আমি ওই একটা ছবিতেই অভিনয় করব। বলতে পারেন, আমি আমার অবস্থানটা রিকোভার (ফিরে পাওয়ার) করার চেষ্টার মিশনে নেমেছি।’

২০১২ সালে চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার হাত ধরেই ঢাকাই চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে মাহির। কিছু ছবিতে অভিনয় করে জনপ্রিয়তাও পান। কিন্তু একটা সময় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে সম্পর্কের তিক্ততার কারণে সে সম্পর্কের মধ্যে ছেদ পড়ে তার।

এ সম্পর্কে মাহি বলেন, ‘জাজ থেকে বের হওয়ার পর টানা আড়াই বছর আমি কোনো ছবিতে কাজ করিনি। তারপর আমি যে কাজগুলো করেছি, সেগুলোর মধ্যে ভালো মানের ছবি ছিল খুবই কম। আমি ওই কাজগুলো করেছি শুধু এই ভেবে, আমাকে আবার সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে ব্যাক করতে হবে। এর বাইরে অন্য কোনো ভাবনা ছিল না।’

গত দুই বছর চলচ্চিত্রে মাহির যে ‘কিছু অর্জন’ নেই, সেটাও অপকটে স্বীকার করে বিষয়টিকে শিল্পীর ক্যারিয়ারের আপ-ডাউন হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, ‘আমার ক্যারিয়ারের গত দুই বছরের কথা যদি বলি, আমার এর আগের অবস্থান আর এখনকার অবস্থানের সঙ্গে তুলনা করলে, সেটা সুখকর নয়। আমি যে জায়গাটাতে আছি, সেটা আমার জন্য ভালো না। একজন শিল্পীর ক্যারিয়ারে আপ-ডাউন আসে। আমি গত দুই বছরকে সেভাবেই দেখছি।’

‘আমি আমার কাছের অনেককেই বলেছি, ওই সময়টাতে নিজেকে কনটিনিউ রাখতে বেশ কিছু মানহীন প্রজেক্টে অভিনয় করে ফেলেছি। তবে নতুন বছরের জন্য যে পরিকল্পনা করেছি, সেখানে অনেক গুছিয়ে কাজ করব। আগে যেভাবে কাজ করতাম, সেভাবে কাজ করার চেষ্টা করব।’

ইতোমধ্যে নতুন কিছু ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েছেন মাহি। তবে ভালো প্রজেক্ট না হলে কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হতে চান না জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সম্প্রতি কিছু ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব এসেছে। কিন্তু খুব একটা ভালো প্রজেক্ট না হলে আমি এখন নতুন কোনো চলচ্চিত্রে অভিনয় করব না। আমি এখন মানহীন সিনেমাতে অভিনয় করতে চাই না, যেগুলো আমার ইমেজের সঙ্গে যায় না।’

গত কয়েক বছর যে হারে চলচ্চিত্র নির্মাণের সংখ্যা কমেছে সেটা নিয়েও হতাশ মাহি। তাই নতুন ছবিতে অভিনয়ের খবর দিতেও এই নায়িকাকে ‘বেগ’ পেতে হচ্ছে।

এ সম্পর্কে মাহি বলেন, ‘চলচ্চিত্র নির্মাণের সংখ্যা কমে গিয়েছে। ভালো কিংবা নতুন চলচ্চিত্রে অভিনয়ের আর কী খবর দিবো? এ অবস্থা হওয়ার কারণ অনেক পুরনো। আর তার রেশ এখন আমরা দেখতে পাচ্ছি। অদূর ভবিষ্যতে এসব সমস্যার সমাধান হবে। এই আর কি।’

‘নির্বাচন গেল, খুব বেশিদিন হয়নি। নির্বাচনের আগে তো সবকিছু থমকে ছিল। কোনো প্রযোজক নতুন কোনো সিনেমাতে বিনিয়োগ করতে চাননি; দেশের পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে। তবে এখন আবার ফের আগের জায়গায় ফিরে যাওয়ার সময় চলে এসেছে। যে যার অবস্থান থেকে গুছিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে। আর কিছুদিন গেলেই হয়তো আস্তে আস্তে সব ঠিক হয়ে যাবে।’

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সরব থাকেন মাহি। কিন্তু গত মাস দুই ধরে সেখানেও তার দেখা নেই। এ নিয়েও অনেক কথা ওঠে। কিন্তু ঘটনাটা আসলে কী?

মাহি জানান, তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি হ্যাকড হয়েছে। রিকোভার করার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আইডি ফেরত পাওয়ার জন্য কাউন্টার টেরোরিজম ও ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইমে (সিটিটিসি) অভিযোগ করেছি। তবে কেউ যদি আমার ওই আইডিটি থেকে কোনো ধরনের ভুল কিংবা বাজে তথ্য ছড়িয়ে থাকে, তাতে করে আমাকে কেউ ভুল বুঝবেন না।’

ইন্ডাস্ট্রিতে গুঞ্জন, স্বামী পারভেজ মাহমুদ অপুর সঙ্গে মাহির দাম্পত্য জীবন খুব একটা সুখের যাচ্ছে না। আসলেই কি তাই? সে জট খোলাসা করে মাহি বলেন, ‘অপুর সঙ্গে সম্পের্কের টানাপোড়েন না, ওর সঙ্গে ফেসবুকে তো ছবি পোস্ট করা হচ্ছে না, যার কারণে কেউ কেউ এ ধরনের কথা বলছেন। আমি শেষ যেদিন শুটিং করেছি, সেদিনও অপু সেটে ছিল। তারপরও কেন এ ধরনের কথা মানুষ বলে, আমি জানি না।’

স্বামী অপুর সাথে তার কি তাহলে কোনো বিবাদ-মনোমালিন্য নেই? এ প্রসঙ্গে মাহি বলেন, ‘আমি তো ঢাকায় বড় হয়েছি। ঢাকায় স্যাটেল হতে চাইব, এটাই স্বাভাবিক। সিলেটে যেতে-আসতে আমার খুব কষ্ট হয়। আর ও ঢাকাতেও আসতে চায় না। এ নিয়ে অপু আর আমার মাঝে ঝগড়া হয়।’

‘আমি ঘোরাঘুরি করতে পছন্দ করি, ও আবার তার ঠিক উল্টো। এসব নিয়ে আমাদের ঝগড়া হয়। যখন অপুর সঙ্গে ঝগড়া করি, সেটা আবার অনেকেই জেনে যান। যার কারণেই তারা এ ধরনের কথা বলতে সুযোগ পান।’

নতুন বছরে এখনো শুটিংয়ে ফেরেননি মাহি। তার ইচ্ছে নতুন একটি ছবির শুটিং দিয়ে বছর শুরু করা। পরে যে ছবিগুলোর শুটিং চলমান ছিল, সেগুলোর কাজ শুরু করবেন। এ সূত্র ধরেই মাহির কাছে জানতে চাওয়া হয়, তবে কি বিগ বাজেটের কোনো সিনেমাতে অভিনয়ের খবর খুব শিগগির পাওয়া যাবে? জবাবে তিনি বলেন, ‘সেটা কবে নাগাদ হবে, আমি জানি না। তবে কথা চলছে।’

বর্তমান ব্যস্ততা সম্পর্কে মাহি জানান, গত বছর তিনি ‘অবতার’ ছবিটির শুটিং শেষ করেছেন। ‘অন্ধকার জগৎ’ নামে আরেকটি ছবি সেন্সর বোর্ডে ছাড়পত্রের জন্য জমা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়াও ‘আনন্দ অশ্রু’সহ কয়েকটি ছবির শুটিং শেষ হওয়ার অপেক্ষায় আছে।

প্রিয় বিনোদন/আজাদ চৌধুরী