আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল ও কবীর সুমন। ছবি: সংগৃহীত

আমার সময়ের সেরা বাঙালি সুরকার বুলবুল: কবীর সুমন

‘সত্যিকার এক গুণী সুরকার শিল্পীকে হারাল পৃথিবী। আমার আধুনিক গানের দুনিয়ায় আমি আরও একা হয়ে গেলাম। একই মহল্লার বাসিন্দা ছিলাম যে আমরা।’

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২১:১৫ আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২১:১৫
প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২১:১৫ আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২১:১৫


আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল ও কবীর সুমন। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ২২ জানুয়ারি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে না-ফেরার দেশে চলে যান বাংলাদেশের জনপ্রিয় গীতিকার, সুরকার ও সংগীত পরিচালক আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। তার মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে আসে বিশ্ব বাঙালির হৃদয়ে। সেই তালিকায় আছেন বাংলা গানের আরেক তুমুল জনপ্রিয় শিল্পী কবীর সুমন। তিনি আজ সন্ধ্যার পর তার ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট দিয়ে শোক প্রকাশ করেন। প্রিয়.কমের পাঠকদের জন্য কবীর সুমনের পোস্টটা হুবহু এখানে তুলে ধরা হলো।

‘আমার সময়ের এক সেরা বাঙালি সুরকার বাংলাদেশের আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল চলে গেলেন। পশ্চিম বাংলার অনেকে তাঁকে সহজেই চিনবেন “সবকটা জানলা খুলে দাও না” গানটির সুরকার হিসেবে।

তিনি গান লিখতেন কিনা ঠিক জানি না। তবে নানান স্মরণীয় গানের সুরকার যে তিনি তা জানি বিলক্ষণ। তার একটি হলো—“সেই রেল লাইনের ধারে”। “মাঝি নাও ছাড়িয়া দে” গানটিও কি তাঁর সুর? বুড়ো মাথার বুড়ো স্মৃতি আর টানতে পারছে না।

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল আধুনিক বাংলা গানের সনাতন ঘরানার সুরকার ছিলেন। এই গানের সুর-তাল-ছন্দ-বাঁধুনির ঐতিহ্যে তাঁর মন ছিল সম্পৃক্ত।

তেমনি, গানের সুর করার পাশাপাশি যন্ত্রাণুষঙ্গ রচনা নিয়ে তিনি উল্লেখযোগ্য কাজ করে গিয়েছেন। বাংলাদেশের একাধিক নবীন সুরকারের ওপর তাঁর প্রভাব লক্ষ্য করা যায়।

তাঁর সঙ্গে একবারই দেখা হয়েছিল আমার ঢাকায়। অনেক বছর আগে। সদালাপী, পরিহাসপ্রিয়, শিষ্টাচারী মানুষ। বিনয়ী। কয়েক মিনিটেই বুঝেছিলাম বন্ধুবৎসল।

বুলবুলের সঙ্গে আমার যোগাযোগ ছিল না। কিন্তু আধুনিক বাংলা গানের সুরকার ও শিল্পী হিসেবে তিনি তো দীর্ঘকাল আমার মনের প্রতিবেশী।

সত্যিকার এক গুণী সুরকার শিল্পীকে হারাল পৃথিবী। আমার আধুনিক গানের দুনিয়ায় আমি আরও একা হয়ে গেলাম। একই মহল্লার বাসিন্দা ছিলাম যে আমরা।

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের সুন্দর, মননশীলতাপূর্ণ ও প্রাণবন্ত সৃষ্টি তাঁকে অমর করে রাখল।’

প্রিয় বিনোদন/আজাদ চৌধুরী