ছেলে তাশফিন আহমেদ রিহানের সঙ্গে জাতীয় দলের পেসার তাসকিন আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত

পিতা-পুত্রের খুনসুটি ও দোয়া প্রার্থনা

ফর্মহীনতা ও ইনজুরির কারণে তাসকিনকে প্রায় ১০ মাস থাকতে হয়েছে জাতীয় দলের বাইরে।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:০৯ আপডেট: ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:১০
প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:০৯ আপডেট: ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:১০


ছেলে তাশফিন আহমেদ রিহানের সঙ্গে জাতীয় দলের পেসার তাসকিন আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ফর্মহীনতার সঙ্গে যোগ হয়েছিল ইনজুরির মিছিল। তাতে জাতীয় দল থেকে যেন কিছুটা দূরেই সরে গিয়েছিলেন তাসকিন আহমেদ। তবে ডানহাতি এই পেসারের জন্য আবারও খুলেছে জাতীয় দলের দরজা। আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফর দিয়ে লম্বা সময় পর দলে ফিরতে যাচ্ছেন তিনি।

নিউজিল্যান্ড সিরিজ সামনে রেখে বুধবার বিকালে দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। কিউইদের বিপক্ষে টেস্ট ও ওয়ানডে উভয় সিরিজের দলেই রাখা হয়েছে তাসকিনকে। দীর্ঘদিন পর জাতীয় দলে ডাক পেয়ে উচ্ছ্বাসের কমতি নেই তরুণ এই পেসারের।

জাতীয় দলের জার্সিতে মাঠে নামার আগে ভক্ত-সমর্থকদের কাছে দোয়া চেয়েছেন তাসকিন। তবে শুধু নিজের জন্যই নয়, ছেলে তাশফিন আহমেদ রিহানের জন্যও দোয়া চেয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছেলের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করেন তাসকিন। ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করা ছবির ক্যাপশনে তিনি লেখেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

জাতীয় দলের জার্সিতে তাসকিন সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছেন ২০১৭ সালের অক্টোবরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। সর্বশেষ টেস্টটিও খেলেছেন একই মাসে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে। দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে ধারাবাহিক ফর্মহীনতার কারণে দল থেকে ছিটকে যান এই পেসার। পাঁচ মাস পর ২০১৮ সালের মার্চে সুযোগ পান নিদাহাস ট্রফিতে খেলার। সেখানে খেলেন দুটি টি-টোয়েন্টি। 

ফর্মহীনতা ও দীর্ঘ ইনজুরির কারণে তাসকিনকে প্রায় ১০ মাস থাকতে হয়েছে জাতীয় দলের বাইরে। মাঝে ‘এ’ দলের হয়ে আয়ারল্যান্ড সফরে গেলেও ইনজুরির কারণে ফিরে আসতে হয় তাকে। শেষ পর্যন্ত নিজেকে ফিরে পেয়েছেন চলমান বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) দিয়ে। এখন পর্যন্ত ৮ ম্যাচে ১৬টি উইকেট নিয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন সিলেট সিক্সার্সের জার্সিতে খেলা তাসকিন।

প্রিয় খেলা/শান্ত মাহমুদ

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...