বলিউডের এ সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নেহা কাক্কর। ছবি: স্কৃনসট

সাবেক প্রেমিকের ‘উদ্দেশে’ নেহার ‘তেরা ঘাটা’ ভিডিও

ভিডিওটি দেখে তার ভক্তরা মনে করছেন গানটি হিমাংশ কোহলিকে উদ্দেশেই গেয়েছেন নেহা।

জানিবুল হক হিরা
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:৫৩ আপডেট: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:৫৩
প্রকাশিত: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:৫৩ আপডেট: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:৫৩


বলিউডের এ সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নেহা কাক্কর। ছবি: স্কৃনসট

(প্রিয়.কম) গজেন্দ্র ভর্মারর ‘ফ্রম লস্ট টু ফাউন্ড’ অ্যালবামের সুপার হিট গানান ‘তেরা ঘাটা’ এবার গাইলেন বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নেহা কাক্কর। শুধু তাই নয় নিজের ইউটিউব চেনেলে গানটির মিউজিক ভিডিও পাবলিশ করেছেন নেহা। 

৩১ জানুয়ারি প্রকাশ করা ভিডিওটি ৩ ফেব্রুয়ারি সন্দা পর্যন্ত দেখেছেন ১ কোটি ৮৭ লক্ষ ৭৩ হাজার ১১৬ জন। 

মিউজিক ভিডিওটিতে নেহা কাক্কর ছিলেন দারুণ হাসিখুশি ও আত্মবিশ্বাসী। কিছুদিন আগে  প্রেমিক হিমাংশ কোহলির সঙ্গে প্রেম ভেঙে যাওয়ার পর মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ও হতাশায় ভুগছিলেন নেহা। হতাশার কারণে চিকিৎসকের কাছেও যেতে হয়েছে তাকে। তিনি নিজেও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লিখেছেন, ‘হ্যাঁ, আমি হতাশায় ভুগছি।’

কিন্তু এবারের এই মিউজিক ভিডিওটি দেখে তার ভক্তরা মনে করছেন গানটি হিমাংশ কোহলিকে উদ্দেশেই গেয়েছেন নেহা। ভিডিওটি দেখে ও শুনে মনে হচ্ছে হিমাংশ কোহলির সঙ্গে বিচ্ছেদের কষ্ট কাটিয়ে উঠেছেন। সাময়িক ভেঙে পড়লেও এবার তিনি মানসিকভাবে যথেষ্ট শক্ত। বোঝাতে চেয়েছেন এসবে তার কিছুই আসে যায় না।

২০১৪ সালে ‘ইয়ারিয়াঁ’ ছবিটির মধ্যদিয়ে বলিউডে প্রবেশ করেন হিমাংশ কোহলি। এখন পর্যন্ত ছয়টি হিন্দি ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি।

মাত্র পাঁচ মাস আগে নিজেদের প্রেমকে সবার সামনে নিয়ে এসেছিলেন হিমাংশ কোহলি ও নেহা কাক্কর। কিন্তু এর মধ্যেই সব শেষ। একজন আরেকজনের মুখ পর্যন্ত দেখছেন না। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দুজনই দুজনকে আনফলো করেছেন। হিমাংশের সঙ্গে নিজের সব পোস্ট ও ছবি ডিলিট করেছেন নেহা। সেই প্রেমের কথা ভেবে শুধুই কেঁদেছেন নেহা কাক্কর। ইনস্টাগ্রামে তখন তিনি লিখেছেন, ‘জানতাম না, জগতে এত খারাপ মানুষ আছে। সবকিছু হারিয়ে এখন তা বেশ বুঝতে পারছি। নিজের সবকিছু দিয়ে দিয়েছি, তার বদলে কী পেয়েছি?’

প্রিয় বিনোদন/হিরা/কামরুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

দেখুন এক খেপে কত মাছ

প্রিয় ১০ ঘণ্টা, ২১ মিনিট আগে

loading ...