অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি বদ্ধপরিকর। ছবি: কে এম নূরুল হুদা

প্রয়োজনে নির্বাচন বন্ধ করে দেওয়া হবে: সিইসি

নির্বাচনে কোনো অনিয়মের সঙ্গে আপোষ করা হবে না। মানুষ ভোট দেবে তার পছন্দের প্রার্থীকে, সেই প্রার্থীই ভোটে নির্বাচিত হবেন।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:৫১ আপডেট: ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:৫১
প্রকাশিত: ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:৫১ আপডেট: ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:৫১


অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি বদ্ধপরিকর। ছবি: কে এম নূরুল হুদা

(প্রিয়.কম) আইনবহির্ভূত কোনো কিছু ঘটলে সংশ্লিষ্ট উপজেলা ও সিটিতে ভোট বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে আগাম হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা

৬ ফেব্রুয়ারি, বুধবার সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে নির্বাচনী কর্মকর্তাদের এক প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।

অনিয়মের ব্যাপারে ইসি জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করবে জানিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) বলেন, ‘নির্বাচনে কোনো অনিয়মের সঙ্গে আপোষ করা হবে না। মানুষ ভোট দেবে তার পছন্দের প্রার্থীকে, সেই প্রার্থীই ভোটে নির্বাচিত হবেন। প্রয়োজনে নির্বাচন বন্ধ করে দেওয়া হবে।’

নূরুল হুদা বলেন, ‘নির্বাচনে কে কোন দলের বা গোষ্ঠীর তা দেখা হবে না। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি বদ্ধপরিকর।’

জাতীয় নির্বাচনে পোলিং এজেন্টদের বের করে দেওয়ার যে অভিযোগ বিএনপি করেছে তার বেশিরভাগই ক্ষেত্রেই সঠিক নয় বলে দাবি করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার। তিনি নির্বাচনে পোলিং এজেন্টদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার কথাও জানান।

প্রিয় সংবাদ/আশরাফ

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...