বলিউডের অভিনেত্রী কারিনা কাপুরের চেহারাটি চৌকো ধাঁচের। ছবি: সংগৃহীত

চৌকো চেহারায় কনট্যুরিং করার নিয়ম

যাদের মুখ চৌকো আকারের, তাদের জন্য কনট্যুরিংয়ের নিয়মটা একেবারেই ভিন্ন। সাধারণ উপায়ে কনট্যুরিং করলে তাদের চেহারা আরও বেশি চৌকো দেখাতে পারে।

কে এন দেয়া
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:৩০ আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:৩০
প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:৩০ আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:৩০


বলিউডের অভিনেত্রী কারিনা কাপুরের চেহারাটি চৌকো ধাঁচের। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) প্রতিটি মানুষের চেহারাই হয় ভিন্ন। যদিও একই ধরনের মেকআপ একেক সময় জনপ্রিয় হয়ে ওঠে, তারপরও প্রত্যেকের চেহারায় তা আলাদা দেখায়। বর্তমান সময়ের এক জনপ্রিয় মেকআপ ট্রেন্ড হলো কনট্যুরিং। এই পদ্ধতিতে চেহারা চিকন দেখায়, সৌন্দর্য ফুটে ওঠে বেশি করে। কিন্তু বেশির ভাগ টিউটোরিয়ালে দেখানো হয় লম্বাটে, গোল বা ডিম্বাকার চেহারায় কনট্যুরিং করার প্রচলিত একটি পদ্ধতি।

যাদের মুখ চৌকো, স্কয়ার বা চারকোনা আকারের, তাদের জন্য কনট্যুরিংয়ের নিয়মটা একেবারেই ভিন্ন।  সাধারণ উপায়ে কনট্যুরিং করলে তাদের চেহারা আরও বেশি চৌকো দেখাতে পারে। তাই আজ জেনে নিন চৌকো চেহারায় কনট্যুরিং করার নিয়মটি।

১) গাল

চৌকো চেহারার পাশাপাশি আপনার গাল যদি ভরাট হয় ও চিকবোন তেমন স্পষ্ট না থাকে, তাহলে হালকা ও গাঢ় দুটি রং আছে এমন কনট্যুরিং কিট কিনুন। তা ব্যবহারের মাধ্যমে আপনার চিকবোনকে ফুটিয়ে তুলতে পারেন। চেহারা চৌকো হলে গালে কনট্যুর করার জায়গাটা বেশ বড় হয়ে থাকে। তাই নাকের দুই আঙুল দূর থেকেই কনট্যুরিং শুরু করুন এবং সেখান থেকে কানের ওপর পর্যন্ত কনট্যুরিং করুন গাঢ় রং দিয়ে। এতে চেহারায় তেকোনা একটা ছায়া পড়বে এবং মুখ তেমন চৌকো দেখাবে না।

২) চোয়াল

চৌকো চেহারার সাথে অনেক সময় চোয়ালটা বেশ ভারী হয়ে থাকে। চেহারার আকৃতি গোলাকার হোক বা চৌকো, চোয়াল ভারী হলে মনে রাখতে হবে, বেশি নিচে কনট্যুর করা যাবে না। তাহলে চোয়াল আরও ভারী দেখাবে। তারা কনট্যুর ব্লেন্ড করে ফেলুন চিকবোনের ঠিক নিচে।

৩) কপাল

কনট্যুরিংয়ে চিকবোনের পাশাপাশি কপালকেও ছোট করে ফেলা হয়, কপালের মাঝ বরাবর গাঢ় রং দেওয়া হয়। তা করা যাবে না। বরং কপালের দুই পাশে হেয়ারলাইন বরাবর গাঢ় রং দিয়ে কনট্যুর করলে মুখটাকে চিকন ও ডিম্বাকার দেখাবে। এ ছাড়া চোখের পাশেও কনট্যুর না করাই ভালো।

৪) চিবুক

চিবুক বা থুতনির মাঝ বরাবর অনেকে একটা হালকা ছায়া তৈরি করেন; তা করবেন না। বরং থুতনির নিচে গাঢ় রং দিয়ে দুই দিক থেকে এমনভাবে ব্লেন্ড করুন, যাতে থুতনি চিকন ও তেকোনা দেখায়। এতে পুরো মুখটাকে চিকন ও হার্ট শেপড মনে হবে।

৫) ব্লাশের ব্যবহার

কনট্যুরিং করার পর গাল খালি না রেখে ব্লাশ বা ব্রঞ্জার ব্যবহার করতে পারেন। এতে গাল গোলাকার মনে হয়, চেহারাতেও মিষ্টি একটা ভাব আসে।

৬) হাইলাইটের ব্যবহার

কনট্যুরের পাশাপাশি চেহারা উজ্জ্বল দেখাতে ব্যবহার করা হয় হাইলাইটার। সাধারণত চিকবোনের ওপরে, নাকে, ঠোঁটের ওপর এমন অনেক জায়গায় হাইলাইটার দেওয়া হয়। কিন্তু চৌকো চেহারায় শুধুই চিবুক এবং কপালে হাইলাইট করতে হবে। এতে চেহারা লম্বা ও চিকন দেখাবে।

সূত্র: আইদিভা

প্রিয় লাইফ/আর বি/আজাদ চৌধুরী