প্রত্যেক হলে ভোটকেন্দ্র স্থাপন করা হবে। ছবি: ফাইল

ডাকসু নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা, নির্বাচন ১১ মার্চ

যারা প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে অনার্স, মাস্টার্স, এমফিলে অধ্যয়নরত তারাই কেবল ভোটার ও প্রার্থী হতে পারবেন।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:২৭ আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:২৭
প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:২৭ আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:২৭


প্রত্যেক হলে ভোটকেন্দ্র স্থাপন করা হবে। ছবি: ফাইল

(প্রিয়.কম) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ১১ মার্চ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মনোনয়ন বিতরণ শুরু ১৯ ফেব্রুয়ারি। চলবে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। মনোনয়ন ফরম জমা দিতে হবে ২৬ ফেব্রুয়ারি।

অন্যান্য রিটার্নিং অফিসারের উপস্থিতিতে ডাকসু নির্বাচনের প্রধান রিটার্নিং অফিসার অধ্যাপক ড. এসএম মাহফুজুর রহমান আনুষ্ঠানিকভাবে এই তফসিল ঘোষণা করেছেন।

১১ ফেব্রুয়ারি, সোমবার সকালে ঢাবির নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন তিনি।

আনুষ্ঠানিকভাবে এস এম মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘নিজ নিজ হল থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করতে হবে এবং হলেই জমা দিতে হবে।’

প্রায় ২৮ বছর বন্ধ থাকার পর আদালতের নির্দেশে অবশেষে ঢাবি প্রশাসন ডাকসু নির্বাচনের উদ্যোগ নিয়েছে। নির্বাচন অনুষ্ঠানে ক্যাম্পাসে ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠনগুলোর সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠকও করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

গত ২৩ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও ডাকসু সভাপতি ড. মো. আখতারুজ্জামান ১১ মার্চ ডাকসু নির্বাচনের তারিখ হিসেবে ঘোষণা করেন। এরই মধ্যে গঠনতন্ত্র সংশোধন ও আচরণবিধি প্রণয়নের কাজ শেষ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইন্স্যুরেন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. এস এম মাহফুজুর রহমানকে প্রধান রিটার্নিং অফিসার এবং আরও পাঁচজনকে রিটার্নিং অফিসার হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। গঠন করা হয়েছে নির্বাচন পরিচালনায় উপদেষ্টা কমিটি।

এদিকে ডাকসু ও হল ছাত্র সংসদ নির্বাচনে কারা কারা ভোটার ও প্রার্থী হতে পারবেন তাও ঘোষণা করা হয়েছে। যারা প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে অনার্স, মাস্টার্স, এমফিলে অধ্যয়নরত তারাই কেবল ভোটার ও প্রার্থী হতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে কারও বয়স ৩০ বছরের ওপরে হলে তারা ভোটার ও প্রার্থী হতে পারবেন না।

এ ছাড়া সান্ধ্যকালীন বিভিন্ন কোর্স, প্রোগ্রাম, প্রফেশনাল এক্সিকিউটিভ, স্পেশাল মাস্টার্স, ডিপ্লোমা, এমএড, পিএইচডি, ডিবিএ, ল্যাঙ্গুয়েজ কোর্স, সার্টিফিকেট কোর্স অথবা এ ধরনের কোর্সে অধ্যয়নরতরা ডাকসু নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না। প্রত্যেক হলে ভোটকেন্দ্র স্থাপন করা হবে।

প্রিয় সংবাদ/রুহুল