নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে শুটিংয়ে পূর্ণিমা। ছবি: সংগৃহীত

ফেরদৌস-পূর্ণিমা আহত, ঢাকায় ফিরছে ‘গাঙচিল’ ইউনিট

ছবিটির নির্মাতা নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূল ১১ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় প্রিয়.কমের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানান।

মিঠু হালদার
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:১৮ আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:১৮
প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:১৮ আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:১৮


নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে শুটিংয়ে পূর্ণিমা। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) নোয়াখালীর চরমণ্ডলে কয়েক দিন আগে শুরু হয় ‘গাঙচিল’ ছবির শুটিং। শুরু থেকেই শুটিংয়ে অংশ নেন নায়ক ফেরদৌস আহমেদ ও নায়িকা পূর্ণিমা। তবে গতকাল শুটিং শুরুর কিছু সময় পরই ঘটে বিপত্তি। ফেরদৌস ও চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা মোটরসাইকেল দুর্ঘটনার শিকার হন। এরপর তারা স্থানীয় একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। পূর্ণিমার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ার কারণে আজ শুটিং প্যাকআপ করে দিয়েছেন নির্মাতা। একটু পরেই পুরো ইউনিট ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেবে।

১১ ফেব্রুয়ারি, সোমবার সন্ধ্যায় প্রিয়.কমের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানান ছবিটির নির্মাতা নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূল। তিনি বলেন, ‘আমাদের ১৩ তারিখ পর্যন্ত শুটিং করার কথা ছিল। কিন্তু পূর্ণিমা আপার হাতের ব্যথাটা বেড়েছে। একটু পরই আমি ইউনিটসহ ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেবো। দুর্ঘটনা তো আর বলে-কয়ে আসে না। তাই এসব নিয়ে ভেবে-চিন্তে বসে থাকলে হবে না। এগুলো তো শুটিংয়েরই অংশ। আমরা আবার মার্চ মাসের ১ তারিখ থেকে পরের অংশের শুটিং শুরু করব।’

গতকাল শুটিংয়ের একটি দৃশ্য ধারণের সময় মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন পূর্ণিমা। পেছনে বসে ছিলেন ফেরদৌস। কিছু বুঝে ওঠার আগেই রাস্তায় স্লিপ কেটে মোটরসাইকেল উল্টে যায়। তারা ছিটকে গিয়ে রাস্তার পাশে পড়ে যথেষ্ট ব্যথা পান। দুজনেরই শরীরের কিছু স্থান ছড়ে যায়।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে চরমণ্ডল আর চর এলাহিতে ‘গাঙচিল’ ছবির শুটিংয়ে অংশ নেন ফেরদৌস আর পূর্ণিমা। গতকাল তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন আনিসুর রহমান মিলন। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের উপন্যাস ‘গাঙচিল’ নিয়ে ছবিটি নির্মিত হচ্ছে।

প্রিয় বিনোদন/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

সালমানের অভিনব প্রতিবাদ

প্রিয় ১৮ ঘণ্টা, ৩৮ মিনিট আগে

loading ...