মাছ ধরায় ব্যস্ত নাসির হোসেন। ছবি: সংগৃহীত

‘সুখ চাইলে মাছ ধরতে যাও’

জাতীয় দলে ফিরতে না পারলেও মাছ ধরায় ফিরেছেন নাসির।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:৩১ আপডেট: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:৩১
প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:৩১ আপডেট: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:৩১


মাছ ধরায় ব্যস্ত নাসির হোসেন। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) সময়টা খুব একটা ভালো যাচ্ছে না। ইনজুরির কারণে দীর্ঘদিন ছিলেন মাঠের বাইরে। ইনজুরি কাটিয়ে মাঠে ফেরেন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসর দিয়ে। কিন্তু বিপিএলের এবারের আসরে মাত্র ৩ ম্যাচে খেলার সুযোগ পান চোট কাটিয়ে ফিরে ফর্মের সঙ্গে লড়াই করতে থাকা নাসির হোসেন

বিপিএল শেষ হওয়ার পর আবারও ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। নিউজিল্যান্ড সফরে ব্যস্ত সময় পার করছেন মাশরাফি-তামিম-মুশফিকরা। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে জাতীয় দলের বাইরে থাকা নাসিরের কোনো ক্রিকেটীয় ব্যস্ততা নেই। জাতীয় দলে ফিরতে না পারলেও মাছ ধরায় ফিরেছেন নাসির! মাছ ধরেই ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন জাতীয় দলের এই তারকা অলরাউন্ডার।

মাছ ধরার বেশ কয়েকটি ছবিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করেছেন নাসির। নাসির নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যায়, হুইল ছিপ দিয়ে গভীর মনোযোগে মাছ ধরছেন তিনি। এ সময় দুটি মাছও পান ২৭ বছর বয়সী এই তারকা ক্রিকেটার।

ছবির ক্যাপশনে নাসির লেখেন, ‘একদিনের জন্য সুখ চাইলে মাছ ধরতে যাও। মাছ ধরায় ফিরতে পেরে খুবই আনন্দিত। সব সময়ের জন্য মাছ ধরা আমার শখ।’

মাছ পেয়ে নাসিরের উল্লাস। ছবি: সংগৃহীত

বিপিএলের এবারের আসরেও সিলেট সিক্সার্সের জার্সিতে খেলেছেন নাসির। কিন্তু বিপিএলে নিজের প্রথম দুই ম্যাচে ব্যাট হাতে যেমন রান পাননি, তেমনি বল হাতেও পাননি উইকেটের দেখা। প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স করতে না পারায় দুই ম্যাচ পরই দল থেকে বাদ পড়েন ডানহাতি এই অলরাউন্ডার।

এখানেই শেষ নয়। অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়ানোর অভিযোগও উঠেছিল নিজের প্রথম দুই ম্যাচে মাত্র ৪ রান করা নাসিরের বিরুদ্ধে। এমনকি ওয়ার্নার বিপিএলে থাকা অবস্থায় দুই ম্যাচ খেলার পর একাদশে আর সুযোগ পাননি নাসির। কুনুইয়ের ইনজুরি নিয়ে ওয়ার্নার দেশে ফেরার পরই দলে সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে সে ম্যাচেও নিজেকে খুঁজে ফেরেন নাসির। বিপিএলের এবারের আসরে ওটাই নাসিরের শেষ ম্যাচ।

প্রিয় খেলা/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...