পাকিস্তানি আম্পায়ার আলিম দার। ছবি: সংগৃহীত

ডিআরএস নিয়ে বিতর্ক, কাঠগড়ায় আলিম দার

নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে রিভিউ চেয়েছিলেন লঙ্কান অধিনায়ক দ্বিমুথ করুণারত্নে। কিন্তু সেটাও নাকচ করে দেন আলিম দার।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:২৬ আপডেট: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:২৬
প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:২৬ আপডেট: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:২৬


পাকিস্তানি আম্পায়ার আলিম দার। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করতে ক্রিকেটে ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (ডিআরএস) অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। এর মাধ্যমে মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানাতে পারেন ক্রিকেটাররা। কিন্তু ক্রিকেটে ডিআরএস অন্তর্ভুক্ত হওয়ার পর থেকে একের পর এক বিতর্ক দেখা দিয়েছে।

সর্বশেষ দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ডারবান টেস্টে বিতর্ক জন্ম দিয়েছে ডিআরএস। তবে এই বিতর্কের সঙ্গেই জড়িয়ে গেছে পাকিস্তানি আম্পায়ার আলিম দারের নাম।

১৩ ফেব্রুয়ারি থেকে ডারবানের কিংসমিডে শুরু হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট। এদিন টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় প্রোটিয়ারা। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই বিদায় নেন ওপেনার ডিন এলগার।

প্রথম উইকেট পতনের পর বিশ্ব ফার্নান্দোর করা পরের বলটি মোকাবিলা করেন সদ্য ক্রিজে আসা হাশিম আমলা। কিন্তু বলটি ব্যাটে-বলে সংযোগ হয়নি। ফার্নান্দোর করা পঞ্চম বলটি আমলার প্যাডে আঘাত করায় এলবিডব্লিউর আবেদন করে লঙ্কানরা। কিন্তু তাদের জোরালো আবেদন প্রত্যাখ্যান করেন আম্পায়ার আলিম দার। কিন্তু টেলিভিশন রিপ্লেতে ধরা পড়ে পরিষ্কার এলবিডব্লিউ ছিলেন আমলা।

এরপর ডিসিশন রিভিউ সিস্টেমে আবেদন করার সুযোগ ছিল লঙ্কানদের। ডিআরএসের পথেই হাঁটছিল তারা। নিজেদের মধ্যে সংক্ষিপ্ত আলোচনার পরই রিভিউ চেয়েছিলেন লঙ্কান অধিনায়ক দ্বিমুথ করুণারত্নে। কিন্তু সেটাও নাকচ করে দেন আলিম দার। কারণ হিসেবে তিনি জানান, লঙ্কানরা রিভিউ চাইতে দেরি করে ফেলেছে।

ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) টেস্ট প্লেইং কন্ডিশন-এর ৩.২.২ ধারা অনুযায়ী, বল ‘ডেড’ হওয়ার ১৫ সেকেন্ডের মধ্যে অধিনায়ক কিংবা সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারকে রিভিউর আবেদন করতে হবে। তবে যদি আম্পায়ারদের মনে হয় ১৫ সেকেন্ড অতিক্রম হয়ে গেছে, সে ক্ষেত্রে তারা রিভিউর আবেদন নাকচ করতে পারবেন।

সেই অনুযায়ী শ্রীলঙ্কার আবেদনে সাড়া দেননি আলিম দার। কিন্তু সম্প্রচারকারী সংস্থার হিসাব আনুযায়ী, রিভিউ চাইতে ১৩ সেকেন্ড সময় নিয়েছিল শ্রীলঙ্কা।

আইসিসির নিয়মে আরও বলা হয়েছে, ১০ সেকেন্ড পর সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটার কিংবা অধিনায়ককে সময়ের ব্যাপারটি মনে করিয়ে দেবেন আম্পায়ার। কিন্তু টেলিভিশন রিপ্লেতে দেখা যায়, তেমন কোনো প্রচেষ্টাও করেননি আলিম দার।

প্রিয় খেলা/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...