খালেদা জিয়াকে বিএনপির প্রাণভোমরা বলেছেন ড. মঈন খান। ছবি সংগৃহীত

খালেদা জিয়া বিএনপির প্রাণভোমরা

খালেদা জিয়া কেবল দেশের কোটি কোটি মানুষের নয়নের মণি নন, তিনি বিএনপির প্রাণভোমরা।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:০৪ আপডেট: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:০৪
প্রকাশিত: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:০৪ আপডেট: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:০৪


খালেদা জিয়াকে বিএনপির প্রাণভোমরা বলেছেন ড. মঈন খান। ছবি সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ক্ষমতা, স্বাধীনতা আর গণতন্ত্র এককথা নয় উল্লেখ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বলেছেন, ‘এই সরকার মানুষের ভোটাধিকার বিসর্জন দিয়ে সন্ত্রাসের নির্বাচনের মাধ্যমে পুনরায় ক্ষমতায় এসেছে। এটা শুধু আমরা নয়, দু’দিন আগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের দুজন সদস্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলেছেন, বাংলাদেশে নির্বাচনের মাধ্যমে যে সরকার গঠন করা হয়েছে, সে সরকার জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না।’ 

১৫ ফেব্রুয়ারি, শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ দলের নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

প্রবীণ এই শিক্ষাবিদ বলেন, ‘খালেদা জিয়া বিএনপির প্রাণভোমরা। সে জন্য একাদশ নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগের পলিসি ছিল খালেদা জিয়াকে যেনতেন প্রকারে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিতে পারলে বিএনপি ধ্বংস হয়ে যাবে। কিন্তু আমি বলে দিতে চাই, খালেদা জিয়া কেবল দেশের কোটি কোটি মানুষের নয়নের মণি নন, তিনি বিএনপির প্রাণভোমরা। সে জন্য তারা খালেদা জিয়াকে মিথ্যা রাজনৈতিক মামলা দিয়ে কারারুদ্ধ করে রেখেছে। কিন্তু বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করা যাবে না। বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করেই আমরা দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করব।’

এ সময় ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নিয়ে ভুল করেনি দাবি করে সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়া বুঝতে পেরেছিলেন আওয়ামী লীগের অধীনে কোনো নির্বাচন সুষ্ঠু হতে পারে না। সে জন্য ২০১৪ সালের নির্বাচনে অংশ না নেওয়া সঠিক ছিল।’

মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন মহিলা দলের সাবেক সভাপতি নূরে আরা সাফা, মহিলা দলের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খান, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য জেবা আমিন খান প্রমুখ।

প্রিয় সংবাদ/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...