মায়ের সঙ্গে সাকিব আল হাসানের মেয়ে আলাইনা হাসান অউব্রি। ছবি: সংগৃহীত

তবে কি ডাক্তারই হবেন সাকিব-কন্যা!

বাবা-মায়ের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করেনি আলাইনা হাসান অউব্রি।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:৩৪ আপডেট: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:৩৪
প্রকাশিত: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:৩৪ আপডেট: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:৩৪


মায়ের সঙ্গে সাকিব আল হাসানের মেয়ে আলাইনা হাসান অউব্রি। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) মেয়ে বড় হয়ে কী হবে?—এ প্রশ্নের উত্তর এখনই দিতে পারছেন না সাকিব আল হাসান কিংবা তার স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির। তবে মেয়ে আলাইনা হাসান অউব্রি অবশ্য বাবা-মায়ের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করেনি। ছোট্ট অউব্রি ইতোমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছে, বড় হয়ে ডাক্তার হতে চায় সে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক পোস্টে এমনটাই জানিয়েছেন সাকিব-পত্নী। শনিবার ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে এক পোস্টের মাধ্যমে তিন বছর বয়সী অউব্রির সঙ্গে তার ছোট্ট কথোপকথন তুলে ধরেন শিশির। মা-মেয়ের সেই কথোপকথনেই ডাক্তার হওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেন সাকিব-কন্যা।

এ সময় মাকে উদ্দেশ করা অউব্রি বলে, মা, ‘আমি প্রতিদিনই দাঁত ব্রাশ করি, যাতে আমার ক্যাভিটি না হয়। আমাকে একটা স্টেথোস্কোপ কিনে দাও মা, আমি ডাক্তার হতে চাই।’

সাকিব-শিশিরের চার হাত এক হয়েছে আজ থেকে বছর ছয়েক আগে। ২০১২ সালের ১২ ডিসেম্বর যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী উম্মে আহমেদ শিশিরের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন সাকিব আল হাসান।

বিয়ের তিন বছরের মাথায় তারকা এই দম্পতির ঘর আলো করে আসে অউব্রি। ২০১৫ সালের ৯ নভেম্বর জন্মগ্রহণ করা সাকিব-কন্যার বয়স প্রায় তিন বছর তিন মাস।

এরই মধ্যে ছোট্ট অউব্রি ডাক্তার হতে চাওয়ায় এবং ক্যাভিটি ও স্টেথোস্কোপের মতো শব্দ উচ্চারণ করায় বিস্ময়ের শেষ নেই মা শিশিরের। তিনি লেখেন, ‘আমি ভাবছি সেই বয়সের কথা। ঠিক কত বছর বয়সে আমি এই শব্দ দুটো (ক্যাভিটি ও স্টেথোস্কোপ) শিখেছিলাম সেটাই তো মনে করতে পারছি না।’

প্রিয় খেলা/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...