ছবিটি প্রতীকী, ইন্টারনেট হতে সংগৃহীত।

পরকীয়ার পরে দাম্পত্য...

দাম্পত্যে পরকীয়া আঘাত করলেও তালাক নাও হতে পারে। পরকীয়ার গ্লানি মুছে ফেলে অনেক দম্পতিই পরস্পরকে ক্ষমা করতে পারেন, পুনরায় ভালোবাসতে পারেন ও দীর্ঘদিন সংসার করতে পারেন। কিন্তু কীভাবে?

রুমানা বৈশাখী
বিভাগীয় প্রধান (প্রিয় লাইফ)
প্রকাশিত: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২২:১৭ আপডেট: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:১৩
প্রকাশিত: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২২:১৭ আপডেট: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:১৩


ছবিটি প্রতীকী, ইন্টারনেট হতে সংগৃহীত।

(প্রিয়.কম) স্বামী বা স্ত্রী কেউ একজন পরকীয়ায় জড়ালেই যে তালাক হয়ে যাবে, সবসময়ে কিন্তু দৃশ্যপট এমন নয়। দাম্পত্যে পরকীয়া আঘাত করলেও তালাক নাও হতে পারে। বিশেষ করে যেসব দম্পতির সন্তান আছে, তাদের ক্ষেত্রে প্রায়ই সমঝোতার মাধ্যমে সংসার টিকিয়ে রাখার চেষ্টা দেখা যায়। এতে দোষের কিছু নেই। কেননা পরকীয়ার গ্লানি মুছে ফেলে অনেক দম্পতিই পরস্পরকে ক্ষমা করতে পারেন, পুনরায় ভালোবাসতে পারেন ও দীর্ঘদিন সংসার করতে পারেন। কিন্তু কীভাবে?

স্পর্শকাতর বিষয়টি নিয়ে আলোচনা থাকছে আজকের ফিচারে।

সবকিছু প্রথম থেকে ভাবুন

পরকীয়ার পরে আবারও সংসার করতে চাইছেন, ভাবছেন সবকিছু আগের মতোই থাকবে? সত্য হচ্ছে, এই ঘটনার পর আপনিও বদলে গেছেন আর বদলে গেছেন সঙ্গীও। তাই সবকিছু আবারও প্রথম থেকে ভেবেচিন্তে শুরু করুন। প্রথম থেকে পরিকল্পনা করুন, প্রথম থেকে জীবন সাজান।

ভুলটা আসলে কোথায় ছিল?

দাম্পত্যে পরকীয়া প্রায়ই আমাদের নিজেদের ভুলেই প্রবেশ করে থাকে। তাই নতুন করে সূচনা চাইলে ভুলগুলো খুঁজে বের করতে হবে। কোথায় ছিল ভুল? কেন দুজনের মাঝে প্রবেশ করলো তৃতীয় ব্যক্তি? প্রশ্নগুলোর উত্তর খুঁজে বের করুন ও ভুলগুলো শুধরে নিন।

কিছু কথা ভুলে যাওয়াই মঙ্গল

খারাপ পরিস্থিতি আমাদের অনেক কিছু শেখায় সত্যি। কিন্তু তার মানে এই নয় যে তিক্ত স্মৃতিগুলো আজীবন মনে রাখতে হবে। নতুন করে সুচনা করতে চাইলে তিক্ত ব্যাপারগুলো নিয়ে ভাবনা-চিন্তা বন্ধ করুন। সঙ্গীর কাছেও বারবার তার পরকীয়ার খুঁটিনাটি জানতে চাওয়া বন্ধ করুন। আপনি দোষী হয়ে থাকলে পরকীয়ার সঙ্গীকে ভুলে যাওয়ার চেষ্টা করুন, তার জন্যে অনুভূতি পুষে রাখবেন না। এক সময়ে দেখবেন ব্যাপারটি মনের আড়াল হয়ে গেছে।

ঘাত-প্রতিঘাত নয়

হ্যাঁ, আপনার সঙ্গী অন্যায় করেছেন। হয়তো অন্যায় করেছেন খুব বেশি। কিন্তু যেহেতু একত্রে সংসার চালিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েই ফেলেছেন, সেহেতু ব্যাপারটি নিয়ে দোষারোপ বা খোঁটা দেওয়ার অভ্যাস পরিহার করুন। এই কাজ করলে সম্পর্ক কখনোই জোড়া লাগবে না।

ক্ষমা করুন, ক্ষমা অর্জন করুন

সম্পর্ক শুরু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া মানেই ক্ষমা নয়। অনেক সময় ক্ষমা করতে না পারলেও আমরা দাম্পত্য চালিয়ে নিই। কিন্তু সময়ের সঙ্গে ক্ষমা করতে পারতেই হবে। অন্তত চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে। আর যদি আপনি নিজেই অপরাধী হয়ে থাকেন, সেক্ষেত্রে প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে যান সঙ্গীর আস্থা পুনরায় অর্জনের। নিশ্চয়ই ক্ষমা পাবেন।

সম্পর্কও একটি দীর্ঘ মেয়াদি অভ্যাস

পরকীয়া মানেই ভালোবাসা নয়। হতে পারে তা ক্ষণিকের মোহ, শারীরিক আকর্ষণ। অন্যদিকে দাম্পত্য খুব মজবুত একটি সম্পর্ক কারণ তা আমাদের নিত্যদিনের অভ্যাস। নতুন সুচনায় সংসার জীবনকে আগের মতোই চলতে দিন, অনেকদিনের রুটিন মেনে নিয়েই সঙ্গীর সঙ্গে জীবন চালিয়ে যান। দেখবেন আস্তে আস্তে সব স্বাভাবিক হয়ে আসবে।

বাস্তবতা হচ্ছে এই যে, পরকীয়ার পর সংসার চালিয়ে নেয়া আদতে খুবই কঠিন। এই কঠিন কাজটি আপনাকে পারফেক্টভাবেই করতে হবে এমন কোন কথা নেই। আপনারা চেষ্টা করছেন, সেটাই সবচাইতে বড় ব্যাপার। শুভকামনা।

প্রিয় লাইফ/ আর বি/কামরুল