গ্রামীণফোনের কার্যালয়। ছবি: সংগৃহীত

বিজ্ঞাপনে আটকে গেল গ্রামীণফোন, কল ড্রপেও বাধাধরা

গ্রামীণফোনকে সিগনিফিকেন্ট মার্কেট পাওয়ার বা এসএমপি অপারেটর হিসাবে ঘোষণা দেওয়ার কয়েকদিন পর এই ঘোষণা আসলো।

রাকিবুল হাসান
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯:৩৮ আপডেট: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯:৩৮
প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯:৩৮ আপডেট: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৯:৩৮


গ্রামীণফোনের কার্যালয়। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) নতুন সেবার (প্যাকেজ, অফার, কলরেট) তথ্য জানিয়ে নেট দুনিয়া, টেলিভিশন বা অন্য কোনো মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিতে পারবে না মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোন

গ্রামীণফোনকে সিগনিফিকেন্ট মার্কেট পাওয়ার বা এসএমপি অপারেটর হিসাবে ঘোষণা দেওয়ার কয়েকদিন পর এই ঘোষণা আসলো।

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) সোমবার প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার (সিইও) কাছে এ সংক্রান্ত চিঠি পাঠিয়েছে।

বিটিআরসি’র চিঠিতে বলা হয়েছে, অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে স্বতন্ত্র এবং একক স্বত্ত্বাধিকার চুক্তি করতে পারবে না গ্রামীণফোন। কোনোভাবেই মাসে কল ড্রপের সর্বোচ্চ হার ২ শতাংশের বেশি হতে পারবে না।

এমএনপি লকের ক্ষেত্রে মেয়াদ হবে ৩০ দিন। দেশব্যাপী কোনো ধরনের মার্কেট কমিউনিকেশন করা যাবে না।

গ্রামীণফোনের কাছে পাঠানো ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (তাৎপর্যপূর্ণ বাজার ক্ষমতা) প্রবিধানমালা, ২০১৮ এর প্রবিধান ৮ অনুযায়ী তাৎপর্যপূর্ণ বাজার ক্ষমতাসম্পন্ন পরিচালনাকারীর তথা গ্রামীণফোনের করণীয় ও বর্জনীয় সংক্রান্ত নির্দেশ আগামী ১ মার্চ থেকে প্রতিপালনের জন্য নির্দেশ দেওয়া হলো।

প্রিয় প্রযুক্তি/আশরাফ

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


loading ...