ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচের ফাইল ছবি।

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলবে না ভারত!

বিশ্বকাপের মঞ্চে পাকিস্তানকে বয়কটের কথা ভাবছে ভারত।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:৩২ আপডেট: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:৩২
প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:৩২ আপডেট: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:৩২


ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচের ফাইল ছবি।

(প্রিয়.কম) পুলওয়ামার ভয়াবহ জঙ্গি হামলার পর আবার উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ভারত-পাকিস্তানের রাজনৈতিক সম্পর্ক। দুই দেশের রাজনৈতিক উত্তাপ ছড়িয়ে পড়েছে ক্রিকেটেও। এর জের ধরে ভারতে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে চলমান পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) সম্প্রচার

এখানেই শেষ নয়, বিশ্বকাপের মঞ্চে পাকিস্তানকে বয়কটের কথা ভাবছে ভারত। আসন্ন ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারতের ম্যাচ না খেলার দাবি ক্রমশ জোরালো হচ্ছে। ইতোমধ্যেই সেই দাবিতে নিজেদের সমর্থন জানিয়েছেন বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়ার সাবেক সচিব সঞ্জয় প্যাটেল ও দেশটির সাবেক ক্রিকেটার হরভজন সিং

গেল ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতশাসিত জম্মু-কাশ্মীরে বোমা হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন দেশটির সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের (সিআরপিএফ) ৪০ জনেরও বেশি সদস্য। এ ছাড়া মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন আরও কয়েকজন। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ভারতীয় বাহিনীর ওপর এটাই সবচেয়ে বড় হামলা।

পুলওয়ামা সিআরপিএফ জওয়ানদের উপর এমন হামলাকে ‘কাপুরুষোচিত’ উল্লেখ করে সঞ্জয় প্যাটেল বলেন, ‘কাপুরুষের মতো জঙ্গি হানায় আমরা যখন এত ভাইকে হারিয়েছি, তখন কীভাবে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত খেলবে বলে আশা করা যায়? আসন্ন বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের খেলা উচিত নয় বলে আমি মনে করি।’

বিসিসিআইয়ের সাবেক এই কর্মকর্তা জানান, দেশের চেয়ে ক্রিকেট কখনো বড় নয়। তার ভাষ্য, ‘বিশ্বকাপে খেললে এই বার্তাই যাবে যে, দেশের ভাবমূর্তির চেয়েও ক্রিকেট খেলাটা বড়। আমার কাছে সবার আগে দেশ। এই আবেগটা যে শুধুই আমার, তা কিন্তু নয়। যেকোনো ভারতীয় এই মতামত পোষণ করেন। সন্ত্রাসবাদ থামলেই একমাত্র ক্রিকেট খেলা যেতে পারে। আশা করব প্রশাসকদের কমিটি ও বোর্ড এটা মাথায় রাখবে। সব কিছুরই একটা সীমা আছে। এবার তো সব সীমা পেরিয়ে যাওয়া হয়েছে।’

একই সুরে কথা বলেছেন হরভজন সিং। ভারতের একটি টেলিভিশন চ্যানেলে সাবেক এই ক্রিকেটার বলেন, ‘বিশ্বকাপেও পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারতের একদম খেলা উচিত নয়। ভারতীয় দলের যা শক্তি, তাতে পাকিস্তানের সঙ্গে একটা ম্যাচ না খেলেও আমরা বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হতে পারি।’

পাকিস্তানের সঙ্গে সবরকম সম্পর্ক ছিন্ন করার তাগিদ দিয়ে সাবেক এই অফস্পিনার আরও বলেন, ‘সবার আগে দেশ। আমাদের সৈন্যরা বারবার মারা যাচ্ছেন। শুধু ক্রিকেট কেন, কোনো খেলাই পাকিস্তানের সঙ্গে খেলা উচিত নয়। নিশ্চয় সরকার কোনো কড়া পদক্ষেপ নেবে। পাকিস্তানের সঙ্গে কোনোরকম সম্পর্ক রাখারই আর প্রয়োজন নেই।’

সন্ত্রাসবাদ বন্ধ না হলে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চেয়ারম্যান রাজীব শুক্লাও পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ খেলার পক্ষপাতী নন। তিনি বলেন, ‘সবসময়ই ক্রিকেট আর রাজনীতিকে আলাদা করে দেখার কথা বলে এসেছি। কিন্তু এখন ব্যাপারটা ক্রিকেটীয় সম্পর্ককেও ক্ষতিগ্রস্ত করছে। যতক্ষণ না পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদকে উৎসাহ দেওয়া বন্ধ করছে, ততক্ষণ তাদের সঙ্গে কোনো ক্রিকেটীয় সম্পর্ক হওয়া উচিত নয়। আমরা এখন সরকারের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করব।’

পাকিস্তানের সন্ত্রাসী সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ সিআরপিএফ জওয়ানদের উপর বর্বর হামলায় দায় ইতোমধ্যেই স্বীকার করে নিয়েছে। সংগঠনটি পাকিস্তানি হওয়ায় আবারও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ভারত-পাকিস্তানের রাজনৈতিক সম্পর্ক। দুই দেশের মধ্যকার সম্পর্ক এতটাই বৈরী হয়েছে যে, ভারতের গুরুত্বপূর্ণ স্থান থেকে পাকিস্তানের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রতিকৃতিও নামিয়ে ফেলা হয়েছে।

প্রিয় খেলা/রিমন

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...