চকবাজারের চুড়িহাট্টায় অগ্নিকাণ্ড। ছবি সংগৃহীত

চকবাজার ট্র্যাজেডি: ডিএনএ টেস্টে আরও ১১ লাশ শনাক্ত

১৯ মরদেহের বিপরীতে লাশের দাবিদার হিসেবে পরিবার সংশ্লিষ্ট ৩৮ জনের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করে সিআইডি।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬ মার্চ ২০১৯, ১৩:৩৫ আপডেট: ০৬ মার্চ ২০১৯, ১৩:৩৫
প্রকাশিত: ০৬ মার্চ ২০১৯, ১৩:৩৫ আপডেট: ০৬ মার্চ ২০১৯, ১৩:৩৫


চকবাজারের চুড়িহাট্টায় অগ্নিকাণ্ড। ছবি সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) পুরান ঢাকার চকবাজারের চুড়িহাট্টায় ২০ ফেব্রুয়ারি রাতের অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের মধ্যে ১৯টি মরদেহের মধ্যে ১১টি মরদেহ শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে। তাদের মধ্যে দুইজন নারী, ৯ জন পুরুষ।

৬ মার্চ, বুধবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার (এসএস) রুমানা আক্তার।

নমুনা সংগ্রহের সময় সিআইডির পক্ষ থেকে বলা হয়, আরও ৮ জনকে শনাক্ত করা যায়নি। ১০ থেকে ১২ দিনের মধ্যে তাদের শনাক্ত করা যাবে। যেহেতু মামলা হয়েছে তাই আইনি প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

গত ২২ ফেব্রুয়ারি, শুক্রবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গ এলাকায় নিহতদের স্বজনের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করে সিআইডি।

চুরিহাট্টায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে মারা যাওয়া ৬৭ জনের মধ্যে ১৯ জনের মরদেহ শনাক্ত করা যায়নি। ১৯ মরদেহের বিপরীতে লাশের দাবিদার হিসেবে পরিবার সংশ্লিষ্ট ৩৮ জনের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করে সিআইডি।

২০ ফেব্রুয়ারি রাতে চকবাজারের চুড়িহাট্টায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৬৭ জন নিহত ও অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হন। আহতদের মধ্যে আরও চারজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়ায় মোট নিহতের সংখ্যা দাঁড়ায় ৭১ জন।

প্রিয় সংবাদ/রুহুল