প্রাধ্যক্ষ জিনাত হুদা। ছবি: সংগৃহীত

ডাকসু নির্বাচন: রোকেয়া হলের তিন ট্রাংকের ব্যাখ্যা দিলেন প্রাধ্যক্ষ

‘এ নিয়ে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়। পরে ওইগুলো সব প্রার্থীকে দেখানোও হয়। সেগুলোতে কোনো সিল মারা ছিল না।’

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০১৯, ১৮:৩১ আপডেট: ১৪ মার্চ ২০১৯, ১৮:৩১
প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০১৯, ১৮:৩১ আপডেট: ১৪ মার্চ ২০১৯, ১৮:৩১


প্রাধ্যক্ষ জিনাত হুদা। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ ডাকসু নির্বাচনের দিন (১১ মার্চ) রোকেয়া হলে তিনটি ট্রাংকে পাওয়া ব্যালট পেপারের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছেন হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক জিনাত হুদা। 

১৪ মার্চ, বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ট্রাংক ভর্তি ব্যালট পেপার পাওয়ার বিষয়ে ব্যাখ্যা দেন তিনি।

জিনাত হুদা বলেন, ‘১১ মার্চ নির্বাচনের আগের দিন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ছয়টি ব্যালট বাক্স এবং তিনটি ট্রাংকসহ কেন্দ্রীয় সংসদের জন্য চার হাজার ৬০৮টি এবং হল সংসদের জন্য চার হাজার ৬৩৮টি ব্যালট পেপার সরবরাহ করা হয়।’

‘ভোটের দিন ছয়টি ব্যালট বাক্স ভোট কেন্দ্রে রাখা হয়। আর বাকি তিনটি ট্রাংক দুই হাজার ৬০৮টি ব্যালট পেপারসহ পাশের রুমে রাখা হয়। এ নিয়ে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়। পরে ওইগুলো সব প্রার্থীকে দেখানোও হয়। সেগুলোতে কোনো সিল মারা ছিল না।’

গত ১১ মার্চ হওয়া ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচনে অনিয়ম-কারচুপির অভিযোগ এনে হল প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগসহ চার দফা দাবিতে রোকেয়া হলের পাঁচ ছাত্রী গেটের বাইরে অনশন শুরু করেন।

প্রিয় সংবাদ/কামরুল/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

ময়মনসিংহ সিটির ভোট ৫ মে

প্রিয় ৫ ঘণ্টা, ৩৬ মিনিট আগে

loading ...