নবনির্বাচিত ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর। ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে যেতে হয়তো তারা সম্মতি দেবে: নুরুল হক নুর

আমি এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংগঠনের নামে সন্ত্রাসীদের হাতে বার বার রক্তাক্ত হয়েছি। তখন আমার এ ভাই-বোনরাই আমার পক্ষে দাঁড়িয়েছে।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৫ মার্চ ২০১৯, ১৬:৫০ আপডেট: ১৫ মার্চ ২০১৯, ১৬:৫০
প্রকাশিত: ১৫ মার্চ ২০১৯, ১৬:৫০ আপডেট: ১৫ মার্চ ২০১৯, ১৬:৫০


নবনির্বাচিত ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনে বিজয়ীদের চায়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে প্রধানমন্ত্রীর সেই চায়ের আমন্ত্রণে যাবেন কি না সেটা সবাইকে নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে বলে জানিয়েছেন নবনির্বাচিত ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর

১৪ মার্চ, শুক্রবার রাজু ভাস্কর্যে অনশনরত শিক্ষার্থীদের দেখতে এসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের নবনির্বাচিত (ভিপি) নুরুল হক নুর এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ ব্যক্তি। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিয়েও উনার দায়িত্ব রয়েছে। আমি যাওয়ার পক্ষে পজিটিভ, প্রধানমন্ত্রীর সামনে আমরা সমস্যাগুলো তুলে ধরতে পারব। তবে আমি একা বললে তো হবে না, অনেকে স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচিত হয়েছে। স্বতন্ত্র প্যানেলগুলো রয়েছে। কাজেই তাদের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নিব, সম্মতি দিলে যাব। বিশেষ করে আমি আন্দোলনকারী ভাই-বোনদের সঙ্গে কথা বলে এবং যারা এ নির্বাচনে অংশ নিয়েছে, তাদের সঙ্গে কথা বলে ফাইনাল ডিসিশন নেব। কারণ তারা যদি সম্মতি না দেয় তাহলে তো আমি যেতে পারব না। আশা করি, তারা হয়তো সম্মতি দেবে।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনে ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা নুরুল হক নুর। জিএস পদে জয়লাভ করেছেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। এ ছাড়া এজিএস নির্বাচিত হয়েছেন ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন

১১ মার্চ, সোমবার রাত সোয়া ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন মিলনায়তনে এ ফলাফল ঘোষণা করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

নুর বলেন, ‘আমি এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংগঠনের নামে সন্ত্রাসীদের হাতে বারবার রক্তাক্ত হয়েছি। তখন আমার এ ভাই-বোনরাই আমার পক্ষে দাঁড়িয়েছে। তারা না চাইলে দায়িত্ব গ্রহণ কিংবা দেখা করতে যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।’

নবনির্বাচিত এই ভিপি বলেন, ‘আমার ব্যক্তি ইমেজকে নষ্ট করার জন্য ও সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের বিভ্রান্ত করার জন্য নানা কিছু ছড়ানো হচ্ছে। আমি আগেও বলছি এখনও বলছি, ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলাম। তবে আমি এখন কোনোভাবেই ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত নই। আমি বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক। এ পরিষদের পক্ষ হতে আমি ডাকসুতে নির্বাচন করেছি। এখানে বিভ্রান্তির কোনো সুযোগ নেই।’

প্রিয় সংবাদ/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

ময়মনসিংহ সিটির ভোট ৫ মে

প্রিয় ৫ ঘণ্টা, ২৯ মিনিট আগে

loading ...