বাঘের লোগো ঢেকে রাখা এই ছবিগুলো ছড়িয়ে পড়েছে নেট দুনিয়ায়। ছবি: ফেসবুক

বাঘের লোগো ঢেকে রেখে সমালোচনার মুখে মুশফিক

ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করতে যাওয়ার সময়ও লোগো ঢেকে রেখেছিলেন!

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০১৯, ১১:৩৮ আপডেট: ১৮ মার্চ ২০১৯, ১১:৩৮
প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০১৯, ১১:৩৮ আপডেট: ১৮ মার্চ ২০১৯, ১১:৩৮


বাঘের লোগো ঢেকে রাখা এই ছবিগুলো ছড়িয়ে পড়েছে নেট দুনিয়ায়। ছবি: ফেসবুক

(প্রিয়.কম) ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা—ভয়ঙ্কর ও ন্যক্কারজনক এই ঘটনাটি নাড়া দিয়ে গেছে পুরো বিশ্বকেই। সবচেয়ে বেশি নাড়া খেয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। কারণ ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন তারাও। তবে অল্পের জন্য বিপদ এড়াতে পেরেছেন মুশফিকুর রহিম-তামিম ইকবালরা। ওই হামলার জেরে তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ টেস্ট বাতিল করে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড।

ইতোমধ্যে দেশে ফিরেছে দল। যার যার পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে ও ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে ক্রিকেটারদের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এর মাঝেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল সমালোচনার শিকার হলেন জাতীয় দলের অভিজ্ঞ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। কারণ, জাতীয় দলের প্র্যাকটিস কিটে (অনুশীলনের জার্সি) অফিশিয়াল টি-শার্টে বাঘের লোগো টেপ দিয়ে ঢেকে রেখেছেন তিনি।

নিউজিল্যান্ড থেকে ফেরার পথে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে একটি ছবি পোস্ট করেন মুশফিক। যেখানে কালো রংয়ের অফিশিয়াল জ্যাকেটে বাঘের লোগোর জায়গাটি টেপ দিয়ে আটকানো দেখা যায়। এমনকি দেশে ফেরার পর মুশফিকের পরিহিত নীল রংয়ের টি-শার্টেও বাঘের লোগোটি টেপ দিয়ে ঢাকা ছিল। এ নিয়ে শুরু হয়েছে সমালোচনা। সমালোচকদের প্রশ্ন, জাতীয় দলের লোগো কেন ঢাকা থাকবে?

এই ছবিটাই বিতর্ক উসকে দেয়। ছবি: সংগৃহীত

ব্যক্তি মুশফিক বড় বেশি আবেগী। টিম হারলে ড্রেসিংরুমে সবচেয়ে বেশি ভেঙে পড়েন তিনিই, ধাতস্থ হতে সময় লাগে বৈকি। জিম্বাবুয়ের সঙ্গে হারার পর নিজ থেকেই অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত যেন তারই প্রমাণ। এশিয়া কাপে পাকিস্তানের সঙ্গে হারার পর সাকিবের বুকে মুখ লুকিয়ে মুশফিকের কান্না তো রুপকথারই অংশ হয়ে গেছে।

দেশে ফেরার পর মুশফিকের পরিহিত নীল রংয়ের টি-শার্টেও লোগো ঢাকা ছিল। ছবি: সংগৃহীত

এ ছাড়াও মুশফিকের আরেকটি পরিচয় রয়েছে। আর তা হলো প্রচণ্ড ধার্মিক জাতীয় দলের এই ক্রিকেটার। সবসময় নামাজ-রোজা করেন। এরই মধ্যে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ওমরাহ হজ পালন করেছেন মুশফিক। অনুশীলন চলাকালীন নামাজ পড়তে গেলে জার্সি উল্টিয়ে কিংবা বাঘের ছবি সম্বলিত লোগো ঢেকে রেখে যান। ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করতে যাওয়ার সময়ও লোগো ঢেকে রেখেছিলেন!

আর সেটাই মেনে নিতে পারছে না সমর্থকদের একাংশ। তাদের দাবি, খেলার সময় লোগো লাগিয়ে খেলতে পারবেন কিন্তু অন্য সময়ে লোগো ঢেকে রাখতে হবে কেন? তবে কি, মুশফিক লজ্জা পান? বেতন নিতে লজ্জা করে না অথচ জাতীয় প্রতীক বাঘের লোগো ঢেকে রাখতে লজ্জা হয়! এ নিয়ে দিনভর সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে মুশফিকের সমালোচনায় মেতে ছিল সমর্থকদের একাংশ।

জাতীয় দলের অনুশীলনে তাইজুল ইসলামের সঙ্গে মুশফিক। তার বাঘের লোগোটি টেপ দিয়ে ঢাকা। ছবি: সংগৃহীত

অনেকে ধারণা করছেন মুশফিক নিয়মিত নামাজ পড়েন। আর ইসলামি নিয়মে বলা আছে, নামাজ পড়ার ক্ষেত্রে প্রাণীর (ছাঁপানো বা আঁকানো) ছবি প্রকাশ্যে রাখলে নামাজ হয় না। সে কারণেই হয়তো মুশফিক বাঘের ছবি ঢেকে রাখেন। তবে লোগো ঢাকার বিষয়ে সমর্থকরা দুইভাবে বিভক্ত। যদিও এই ব্যাপারে মুশফিকের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।  

সমালোচনার কিছু অংশ। ছবি: সংগৃহীত

সমালোচকদের দাবি, নামাজ আদায় করার সময় ছাড়াও তো বিভিন্ন সময় লোগো ঢেকে রাখেন মুশফিক। তাদের যুক্তি, সারাদিন ফেসবুকে ছবি পোস্ট করতে পারবেন তাতে পাপ হয় না। কিন্তু লোগো ঢেকে রাখলে পাপ হয়ে যায়? কেউ কেউ আবার মুশফিকের সমালোচনা করে তাকে ক্রিকেট ছেড়ে তাবলিগে যোগ দিতে পরামর্শও দিয়েছেন। অনেকে আবার বলছেন, এ জন্য মুশফিকের শাস্তি কিংবা জরিমানাও করা উচিত!

ফেসবুক থেকে নেওয়া স্ক্রিনশট। সংগৃহীত

সমালোচনা হলেও বেশিরভাগ সমর্থকই মুশফিকের পক্ষ নিয়েছেন। ফেসবুকে এ নিয়ে তারা বিভিন্ন পোস্টও দিয়েছেন। তাদের দাবি, লোগো দিয়ে দেশপ্রেমের প্রমাণ হয় না। ধর্ম যার যার ব্যক্তিগত ব্যাপার। মুশফিক লোগো ঢেকে রাখতেই পারেন। তাই বলে তার দেশের প্রতি প্রেম কিংবা জাতীয় দলের প্রতি তার আত্মোৎসর্গ-অঙ্গীকার বৃথা হয়ে যেতে পারে না।

ফেসবুক থেকে নেওয়া স্ক্রিনশট। সংগৃহীত

মুশফিকের সমালোচনার জবাবে ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন অভিজ্ঞ ক্রীড়া সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম রনিও। তিনিও লিখেছেন, ‘পাঁজরে ব্যথা নিয়ে যে ছেলেটি দিনের পর দিন খেলছে, এশিয়া কাপে বুকে টেপ পেঁচিয়ে অসহ্য ব্যথা সহ্য করে ম্যাচের পর ম্যাচ খেলেছে এবং অসাধারণ খেলেছে, যার পরিশ্রম দেখতে দেখতেই আমাদের প্রায়ই অস্থির লাগে যে এত কষ্ট কিভাবে করতে পারেন, সেই মুশফিক নাকি দেশের ক্রিকেটকে অপমান করেছেন লোগো ঢেকে রেখে!’

প্রিয় খেলা/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...