বেশ কিছু কারণে ধনী ব্যক্তিরা ঘুষ দেওয়া-নেওয়ার মতো অনৈতিক কাজ করেন। ছবি: সংগৃহীত

ধনী পিতামাতা যে কারণে অনৈতিক কাজ করেন

কী কারণে ধনী পিতামাতা অনৈতিক কাজ করেন, তার পেছনে কিছু যুক্তি রয়েছে।

কে এন দেয়া
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০১৯, ২০:০৫ আপডেট: ১৮ মার্চ ২০১৯, ২০:০৫
প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০১৯, ২০:০৫ আপডেট: ১৮ মার্চ ২০১৯, ২০:০৫


বেশ কিছু কারণে ধনী ব্যক্তিরা ঘুষ দেওয়া-নেওয়ার মতো অনৈতিক কাজ করেন। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে শিক্ষা ক্ষেত্রে এক কেলেঙ্কারির কথা প্রকাশ হয়েছে; জানেন হয়তো অনেকেই। ঘুষ দিয়ে নিজের সন্তানকে ভালো কলেজে ভর্তি করানোর অপরাধে প্রায় ৫০ জন নামিদামি ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে, হলিউডের নামকরা কয়েকজন ব্যক্তিত্বও আছেন তার মাঝে। 

অনেকেই ভাবতে পারেন, এত ধনী ব্যক্তিরা কীভাবে এমন কাজ করতে পারলেন? ইউনিভার্সিটি অব মিশিগানের এক মনস্তত্ত্ববিদ, ডেভিড এম. মেয়ার দিয়েছেন এর উত্তর। তার মতে, বেশ কিছু কারণে ধনী ব্যক্তিরা ঘুষ দেওয়া-নেওয়ার মতো অনৈতিক কাজ করেন। সন্তানের জন্য ধনী পিতামাতা এমন কাজ করতে পিছপা হন না। যুক্তরাষ্ট্রে এ বিষয়টি সম্প্রতি প্রকাশ হলেও, আমাদের দেশেও খুঁজলে হয়তো এমন ঘটনা পাওয়া যাবে।

কী কারণে ধনী ব্যক্তিরা এমন অনৈতিক কাজ করেন, তার পেছনে বেশ কিছু কারণ দেখিয়েছেন ডেভিড এম. মেয়ার। নিচে সেগুলো তুলে ধরা হলো।

১) কেন তারা অপরাধবোধে ভোগেন না

গবেষণায় দেখা যায়, নিজের স্বার্থ উদ্ধার হবে এমন অনৈতিক কাজ করার পেছনে যুক্তি তৈরি করতে মানুষ খুবই ভালো। সন্তানের সাফল্যের ওপর পিতামাতার মানসম্মান নির্ভর করে, এমনটাই মনে করেন অনেকে। সন্তানের সফলতা নিশ্চিত করতে ঘুষ দিতেও তাই তারা পিছপা হন না, এমনকি দাবি করেন ‘অমুকের বাবা-মা তো এর চেয়েও বেশি ঘুষ দিচ্ছে!’

শুধু তা-ই নয়, বাবা-মা মনে করেন, সন্তানের জন্যই তো ঘুষ দিচ্ছেন, নিজের জন্য নয়। এ কারণেও তারা মনে করেন কাজটা অন্যায় হচ্ছে না।

২) তারা ভেবে নেন এটা তাদের অধিকার

একজন মানুষ খুব ধনী হয়ে গেলে ভাবতে থাকেন, সফল হওয়াটা তার অধিকার বা তার সন্তানের ভালো মানের শিক্ষা ক্ষেত্রে পড়াশোনা করার অধিকার আছে, কারণ তার বাবা-মা বিত্তবান। তারা মনে করে নিয়ম ভাঙার অধিকার তার আছে। এ থেকে তারা স্বার্থপর ও আগ্রাসী মনোভাবের হয়ে ওঠেন।

গবেষণায় দেখা গেছে, একজন বিত্তবান মানুষ, যে নিজেকে ‘আপার ক্লাস’ মনে করেন, তিনি নিজের স্বার্থ উদ্ধারের জন্য সহজেই মিথ্যা বলতে পারেন; চুরি এমনকি ধাপ্পাবাজিও করতে পারেন। তারা গাড়ি চালানোর সময়ে নিয়ম ভাঙেন বেশি, দান করেন কম এবং অন্যদের প্রতি মনোযোগ কম দেন। এসব কারণে সন্তানের সাফল্যের জন্য ঘুষ দিতে তাদের বিবেকে বাধে না। এ ছাড়া ধনী পিতামাতার সন্তানরা বিত্ত-বৈভবের মাঝে বড় হয় বলে তারা বেশ স্বার্থপর ও আত্মকেন্দ্রিক হয়।

৩) মান-সম্মান হারানোর ভয়

সন্তানকে নামিদামি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠানোটাকে ‘স্ট্যাটাস সিম্বল’ মনে করেন অনেকেই। সন্তান ভালো জায়গায় পড়াশোনার সুযোগ না পেলে তারা এই ‘স্ট্যাটাস’ হারাবেন, এই চিন্তা থেকেই তারা অনৈতিক পথে হলেও সন্তানের সুযোগ করিয়ে দেন। এমনকি স্ট্যাটাস চলে যাবে এই চিন্তা থেকে তাদের উচ্চ রক্তচাপ এমনকি সুইসাইডের চিন্তাও আসতে পারে।

৪) আইনকে ভয় না পাওয়া

ধনী হয়ে গেলে অনেকেই ভাবেন তিনি অনেক ক্ষমতাবান হয়ে গেছেন। এছাড়া জনপ্রিয় ব্যক্তিত্বদেরও ক্ষমতা থাকতে পারে। এই ক্ষমতার মোহে তিনি ভাবেন, আইন তাকে স্পর্শ করতে পারবে না। আর তাই তিনি অনৈতিকতার পথে পা বাড়াতে ভয় পান না।

সূত্র: লাইভ সায়েন্স

প্রিয় লাইফ/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...