মিট দ্য প্রেস শীর্ষক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। ছবি: সংগৃহীত

২০২১ সালে দেশে আসবে বৈশ্বিক আইটি জায়ান্টরা

১৯ মার্চ ‘টেকনোলজি ফর প্রসপারিটি’ স্লোগানে শুরু হচ্ছে দেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতের জনপ্রিয় প্রদর্শনী বেসিস সফটএক্সপো-২০১৯। সফটএক্সপো উপলক্ষে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

রাকিবুল হাসান
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০১৯, ১৮:১৩ আপডেট: ১৮ মার্চ ২০১৯, ১৮:১৩
প্রকাশিত: ১৮ মার্চ ২০১৯, ১৮:১৩ আপডেট: ১৮ মার্চ ২০১৯, ১৮:১৩


মিট দ্য প্রেস শীর্ষক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ২০২১ সালে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হবে ‘ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস অন আইটি (ডব্লিউসিআইটি)’। এতে বৈশ্বিক আইটি জায়ান্টদের প্রধানরা অংশ নেবেন।

১৮ মার্চ, সোমবার বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক

১৯ মার্চ ‘টেকনোলজি ফর প্রসপারিটি’ স্লোগানে শুরু হচ্ছে দেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতের জনপ্রিয় প্রদর্শনী বেসিস সফটএক্সপো-২০১৯। সফটএক্সপো উপলক্ষে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, ‘২০২১ সালে ডব্লিউসিআইটির হোস্ট কান্ট্রি বাংলাদেশ। বিশ্বের যেসব আইটি জায়ান্ট রয়েছে, তাদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও), প্রেসিডেন্ট তারা বাংলাদেশে আসবেন। আমরা সফলভাবে এর আয়োজন করব। এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশকে বিশ্বের বুকে তুলে ধরা সম্ভব হবে।’

বেসিস সফটএক্সপোর বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘স্থানীয় তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অগ্রগতি ডিজিটাল বাংলাদেশের মূল ভিত্তি। ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হচ্ছে স্থানীয় তথ্যপ্রযুক্তি খাতের নিরলস অবদানের কারণেই। বেসিস সফটএক্সপো আয়োজনের মূল লক্ষ্য হচ্ছে স্থানীয় তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের সক্ষমতা তুলে ধরা। পাশাপাশি এবার তথ্যপ্রযুক্তি সংশ্লিষ্টদের অংশগ্রহণ থাকছে। তথ্যপ্রযুক্তি ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং বেসিস দীর্ঘদিন থেকেই একযোগে কাজ করছে। এবারের বড় পরিসরে আয়োজিত বেসিস সফটএক্সপো ২০১৯-ও আমরা যৌথভাবে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

অনুষ্ঠানে বেসিস সফটএক্সপো ২০১৯-এর এক্সিপেরিয়েন্স জোন এবং ইন্ডাস্ট্রি ৪.০ জোন বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের আধুনিক প্রযুক্তি এবং সেবাগুলো তুলে ধরবে, উঠে আসবে সামগ্রিক স্থানীয় তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অগ্রগতির চিত্র। এ দুটির জোনের পার্টনার হিসেবে বেসিস সফটএক্সপো ২০১৯ নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব এন এম জিয়াউল আলম

বেসিসের সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর বলেন, ‘দেশের সফটওয়্যার প্রতিষ্ঠানগুলোর সম্প্রসারণে এই এক্সপোর আয়োজন করা হয়েছে। এতে প্রায় আড়াইশ প্রতিষ্ঠান অংশ নেবে। দেশের সফটওয়্যারের নিজস্ব চাহিদা পূরণে সক্ষমতা প্রদর্শন ও আস্থা তৈরিই এ প্রদর্শনীর লক্ষ্য।’

বেসিস সফটএক্সপো ২০১৯-এর আহ্বায়ক ফারহানা এ রহমান বলেন, ‘আমাদের তথ্যপ্রযুক্তি খাত সামনে এগিয়ে যাচ্ছে বলেই ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। আমাদের এ আয়োজনের মাধ্যমে আমরা বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সক্ষমতা তুলে ধরব। এবারের আসরে আমরা সারা দেশ থেকেই প্রচুর সাড়া পেয়েছি। দেশ-বিদেশ থেকে বক্তারা আসবেন।’

‘নারী উদ্যোক্তাদের জন্য থাকছে উইমেন জোন। শিক্ষার্থীদের জন্য প্রতিটি স্টলেই থাকবেন সিভি জমা দেয়ার সুবিধা। থাকছে বি-টু-বি ম্যাচমেকিং, জাপান ডে, করপোরেট আওয়ার। বিজনেস লিডারশিপ মিটে অংশ নেবেন পাঁচ শতাধিক করপোরেট হাই অফিশিয়াল। আমরা সবাইকে নিয়েই বড় পরিসরে সমগ্র আয়োজনটি করব।’

রাজধানীর বসুন্ধধরায় আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটিতে তিন দিনের এ প্রদর্শনী শুরু হবে ১৯ মার্চ। চলবে ২১ মার্চ পর্যন্ত। সকাল ১০টা থেকে প্রদর্শনী শুরু হবে, চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত।

প্রিয় প্রযুক্তি/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...