বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ভবন। ফাইল ছবি

গোপালগঞ্জে দলীয় প্রতীক ছাড়াই হচ্ছে উপজেলা নির্বাচন

বিএনপির নির্বাচনে অংশ না নেওয়া এবং আওয়ামী লীগের ভোটার বেশি হওয়ায় দলীয় প্রধান ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা প্রতীক উন্মুক্ত করে দিয়েছেন।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৯ মার্চ ২০১৯, ১১:১০ আপডেট: ১৯ মার্চ ২০১৯, ১১:১০
প্রকাশিত: ১৯ মার্চ ২০১৯, ১১:১০ আপডেট: ১৯ মার্চ ২০১৯, ১১:১০


বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ভবন। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) সারাদেশে ধাপে ধাপে অনুষ্ঠিত হচ্ছে পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। সেই নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান ও সংরক্ষিত ভাইস চেয়ারম্যান পদ ব্যতীত চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রতীক ব্যবহার করা হচ্ছে এবং দলগতভাবে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।

তবে একমাত্র ব্যতিক্রমী হচ্ছে গোপালগঞ্জ জেলা। সারাদেশে দলীয় প্রতীকে উপজেলা নির্বাচন হলেও এখানে প্রার্থীদের কোনো দলের প্রতীক দেওয়া হয়নি। উন্মুক্ত মার্কা থাকায় ভিন্ন আমেজ প্রার্থী ও ভোটারদের মধ্যে। এখানে পাঁচটি উপজেলায় প্রার্থীদের নেই কোনো দলের মার্কা।

ইতোমধ্যে গত ১০ মার্চ প্রথম ধাপে এবং ১৮ মার্চ দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় আগামী ২৪ মার্চ সারাদেশে তৃতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হবে।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাদের ভাষ্য, উপজেলা নির্বাচনে রাজনৈতিক প্রধান প্রতিপক্ষ বিএনপি অংশ না নেওয়ায় এবং এখানে আওয়ামী লীগের ভোটার বেশি হওয়ায় দলীয় প্রধান ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা প্রতীক উন্মুক্ত করে দিয়েছেন।

এদিকে দলের এমন সিদ্ধান্তে খুশি চেয়ারম্যান প্রার্থীরাও। তারা বলছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার নিজ এলাকায় প্রতীক উন্মুক্ত করেছেন এই জন্য যে, জনগণ যাতে একটু আদর যত্ন পায়। আর এতে করে ভোটারদের সাড়াও পাওয়া যাচ্ছে বেশি। তবে যারা নির্বাচিত হবেন তাদের দায়বদ্ধতাও বেড়ে যাবে।

ভোটরাদের ভাষ্য, দলীয় প্রতীকে উপজেলা নির্বাচন না হওয়ায় জনগণ খুশি, দেশবাসিও খুশি। ভোটারদের কদরও বেড়ে গেছে।

এ বিষয়ে টুঙ্গীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. ইলিয়াস হোসেন জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বল ছেড়ে দিয়েছি, খেলে গোল দিতে পার। আর সেই মোতাবেক আমরা নির্বাচনী প্রস্তুতি নিয়েছি।

গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলী খান জানান, ‘প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তে আমরা খুশি। উন্মুক্ত প্রতীকে নির্বাচন হচ্ছে বলে নির্বাচনও উৎসব মুখর হচ্ছে, ভোটাররা খুব আমেজে আছেন।’

প্রিয় সংবাদ/আশরাফ

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...