বেসিস সফটএক্সপোর দ্বিতীয় দিনে পালিত হচ্ছে জাপান ডেসহ অন্যান্য বিশেষ সেমিনার। ছবি: সংগৃহীত

জাপানের অংশগ্রহণে পালিত হচ্ছে জাপান ডে

তিন দিনব্যাপী বেসিস সফটএক্সপো ২০১৯ চলবে ২১ মার্চ পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত প্রদর্শনী সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

রাকিবুল হাসান
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২০ মার্চ ২০১৯, ১৬:৩১ আপডেট: ২০ মার্চ ২০১৯, ১৬:৩৩
প্রকাশিত: ২০ মার্চ ২০১৯, ১৬:৩১ আপডেট: ২০ মার্চ ২০১৯, ১৬:৩৩


বেসিস সফটএক্সপোর দ্বিতীয় দিনে পালিত হচ্ছে জাপান ডেসহ অন্যান্য বিশেষ সেমিনার। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) টেকনোলজি ফর প্রসপারিটি স্লোগানকে নিয়ে গতকাল আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) শুরু হয়েছে দেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতের জনপ্রিয় প্রদর্শনী ১৫তম বেসিস সফটএক্সপো ২০১৯।

প্রথম দিনের সব সেমিনারে স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের পর ২০ মার্চ, বুধবার দ্বিতীয় দিনে পালিত হচ্ছে জাপান ডে’সহ বিশেষ সেমিনার।

জাপানের বাজারে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তির বাজার প্রসারে যৌথভাবে কাজ করছে সরকার এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসহ বেসিস। জাপানে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তির ক্রমবর্ধমান সম্ভাবনার কথা মাথায় রেখে বেসিস মেলার দ্বিতীয় দিনকে জাপান ডে হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তারা জানান, জাপানে বাংলাদেশের বাজার বৃদ্ধিতে খোলা হচ্ছে বাংলাদেশের ডেস্ক; একইভাবে বাংলাদেশে জাপানের ডেস্ক থাকবে। বর্তমানে জাপানে বাংলাদেশে জাপানের চলমান কার্যাবলি যেমন—জাইকার সহায়তায় মেট্রোরেল, কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র, পোর্ট, বিভিন্ন ইনফ্রাস্টাকচার, রিনিউয়েবল এনার্জি ডেভেলপমেন্ট, বাংলাদেশের বর্তমান জিডিপিতে রিলায়াবল পাওয়ারের ব্যবহার উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, জাপান-বাংলাদেশ সর্ম্পকের উত্তরোত্তর উন্নতি হচ্ছে, যা দেশের অর্থনীতিকে সমৃদ্ধ করবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশী

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী জানান, জাপানের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক বহু পুরনো এবং বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়নে জাপানের সহযোগিতা বরাবরই ইতিবাচক। সরকার দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতকে খুবই গুরুত্ব দিয়ে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে এবং এর ফলাফলও ইতিবাচক। সম্প্রতি জাপানকে বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম সহায়তা প্রদান এবং বাংলাদেশের সম্ভাবনা বিবেচনায় সরকার জাপানকে ৪০০ হেক্টর জমি প্রদান করার প্রস্তাব অনুমোদিত হয়েছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘তথ্যপ্রযুক্তি ছাড়াও অন্যান্য বাণিজ্য প্রসারেও জাপান বাজার বাংলাদেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আগামী পাঁচ বছরে এ সম্পর্কের আরও উন্নতি হবে বলে আমি মনে করি। এ সম্পর্ক উন্নয়নে এ ধরনের আয়োজন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি।’

তিন দিনব্যাপী বেসিস সফটএক্সপো ২০১৯ চলবে ২১ মার্চ পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত প্রদর্শনী সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

প্রিয় প্রযুক্তি/আজাদ চৌধুরী