বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী। ফাইল ছবি

বিএনপি সঠিক পথে চলছে: আমির খসরু

সরকার উন্নয়নের কথা বললেও বাংলাদেশ সুখী দেশের তালিকা থেকে ১০ ভাগ নিচে নেমে গেছে।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২২ মার্চ ২০১৯, ১৪:৩৯ আপডেট: ২২ মার্চ ২০১৯, ১৪:৩৯
প্রকাশিত: ২২ মার্চ ২০১৯, ১৪:৩৯ আপডেট: ২২ মার্চ ২০১৯, ১৪:৩৯


বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) বিএনপি সঠিক পথে চলছে দাবি করে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘বর্তমান সময়ে বিএনপি যেভাবে চলছে এটি সঠিক পথ। দলটি অতীতেও এভাবে চলে এসেছে, আগামীতেও এমনভাবেই চলবে।’

২২ মার্চ, শুক্রবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে জিয়া পরিষদের ৩১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনাসভায় তিনি এ কথা বলেন।

খসরু বলেন, ‘যে বা যারা বিএনপিকে ঘুরে দাড়াতে বলেন তাদেরকে বলছি- বিএনপি নয়, বরং আওয়ামী লীগ কীভাবে ঘুরে দাড়াবে সেটি এখন চিন্তার বিষয়।’

এদিকে একই দিন জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মহিলা দলের এক মানববন্ধনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, বিচার বিভাগসহ দেশের সব সেক্টর সরকার দখল করেছে এবং আওয়ামী লীগের নির্দেশেই খালেদা জিয়াকে আটক করে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান ।

মঈন খান বলেন, ‘আজকে প্রমাণিত হয়েছে এই সরকার জনগণের ওপর অলিখিত বাকশাল তৈরি করে মানুষের কথা বলার স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে। কিন্তু তারা চিরদিন এটা করতে পারবে না। বাংলাদেশের গণতন্ত্রকামী মানুষ, স্বাধীনতাকামী মানুষ এর প্রতিবাদ করবেই।’

মঈন খান আরও বলেন, ‘কয়েকদিন আগে একটি কথা শুনেছি বাকশালের মাধ্যমে নাকি গণতন্ত্র হয়। আমার প্রশ্ন পৃথিবীতে যারা রাষ্ট্রবিজ্ঞান বই লিখেছেন তারা কি সেই বই বাতিল করে নতুন করে বই লিখবেন বাকশালের মাধ্যমে গণতন্ত্র হয়।’

খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে দেশে পুনরায় তার নেতৃত্বেই বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা হবে বলে মন্তব্য করে ড. মঈন খান বলেন, ‘খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে পুনরায় এদেশে গণতন্ত্র কায়েম করা হবে, সেই গণতন্ত্র হবে বহুদলীয় গণতন্ত্র, সে গণতন্ত্র বাকশালী গণতন্ত্র নয়। শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বাকশাল থেকে এদেশের মানুষকে গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।’

বিএনপির এই নীতিনির্ধারক বলেন, ‘আওয়ামী লীগ কোনো দিন এদেশে গণতন্ত্র চায়নি। তারা চেয়েছে একদলীয় শাসন। ১৯৭৫ সালে তারা বাকশাল কায়েম করেছিল। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ সেটা গ্রহণ করে নাই। একদলীয় শাসনের জন্য বাংলাদেশ স্বাধীন হয়নি। বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে গণতন্ত্রের জন্য।’

সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘আজকে মেগা প্রজেক্টের নামে মেগা দুর্নীতি হচ্ছে। দরিদ্র জনগণের ট্যাক্সের টাকা লুটপাট করে বর্তমান সরকার মেগা প্রজেক্ট করছে। এতে করে লাভবান হচ্ছে সরকারের গুটিকয়েক পোষা লোকজনের।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘গতকাল জাতিসংঘ একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে তা হচ্ছে সারা বিশ্বে সুখী দেশগুলোর তালিকা প্রকাশ করেছে। বলতে লজ্জা হয় বাংলাদেশ সুখী দেশগুলো যে পজিশনে ছিল সেখান থেকে ১০ ধাপ নিচে নেমে গেছে। সরকার সব সময় বলছে বাংলাদেশ নাকি বিশ্বের রোল মডেল, তাহলে বিশ্বের সুখী দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ১০ ধাপ নিচে নামল কেন? এর জবাব সরকারকে দিতে হবে, ধোঁকাবাজি দিয়ে চিরদিন টিকে থাকা যায় না।’

প্রিয় সংবাদ/আশরাফ

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...