ছবিটি প্রতীকী, ইন্টারনেট হতে সংগৃহীত।

প্রিয় মানুষটিকে আজকাল সন্দেহ হচ্ছে খুব?

সন্দেহ সবসময়ে অমূলক হয় না। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় আমাদের সন্দেহ সত্য প্রমাণিত হয়। কীভাবে নিশ্চিত হবেন আপনার সন্দেহ সত্য না মিথ্যা? সত্য হলে কী করবেন আর মিথ্যা হলেই বা কী করবেন?

রুমানা বৈশাখী
বিভাগীয় প্রধান (প্রিয় লাইফ)
প্রকাশিত: ২৫ মার্চ ২০১৯, ২১:৪২ আপডেট: ২৫ মার্চ ২০১৯, ২১:৪২
প্রকাশিত: ২৫ মার্চ ২০১৯, ২১:৪২ আপডেট: ২৫ মার্চ ২০১৯, ২১:৪২


ছবিটি প্রতীকী, ইন্টারনেট হতে সংগৃহীত।

(প্রিয়.কম) সম্পর্কে মান-অভিমান যেমন স্বাভাবিক, তেমনই স্বাভাবিক পরস্পরকে সন্দেহ করা। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, যদি প্রিয় মানুষটিকে কোনো কারণে সন্দেহ হয়, তাহলে কী করবেন? কেননা, সন্দেহ সবসময়ে অমূলক হয় না। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় আমাদের সন্দেহ সত্য প্রমাণিত হয়, প্রিয় মানুষটি প্রতারণার আশ্রয় নেয়। কীভাবে নিশ্চিত হবেন আপনার সন্দেহ সত্য না মিথ্যা? সত্য হলে কী করবেন আর মিথ্যা হলেই বা কী করবেন? সম্পর্কের এই অন্যরকম দিকটি নিয়েই আজকের ফিচার।

সন্দেহ করার চাইতে যাচাই করা উত্তম

মনে মনে সন্দেহ পুষে রেখে মানসিক যাতনায় ভোগার কোনো মানে নেই। প্রিয়জনের ব্যাপারে মনে কোনো সন্দেহ জেগে থাকলে সেটার মীমাংসা করা খুবই জরুরি। প্রথমত, সঙ্গীকে আপনি সরাসরিই জিজ্ঞেস করতে পারেন। আপনি তাকে জানেন ও চেনেন, তিনি মিথ্যা বললে খুব বেশিদিন আপনার কাছ থেকে লুকাতে পারবেন না। সত্য বললেও তা আপনি বুঝতে পারবেন। সরাসরি জিজ্ঞেস করা ছাড়াও যদি ইস্যুটি গুরুতর হয়, সে ক্ষেত্রে নিজের মতো করে একটু খোঁজখবর করুন। সত্য যেমন চাপা থাকে না, মিথ্যাও চাপা থাকে না। সঙ্গী কোন বিষয়ে প্রতারণা করে থাকলে আপনি অবশ্যই একভাবে না একভাবে জানতে পারবেন।

যদি আপনার সন্দেহই সঠিক হয়

সবচাইতে কঠিন ব্যাপারটি শুরু হয় এখন, যদি জানতে পারেন যে আপনার সন্দেহটি অমূলক নয়। এ ক্ষেত্রেও সবচাইতে উত্তম হচ্ছে সরাসরি কথা বলা, সঙ্গীকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেয়া। তাকে এই সুযোগ দেওয়া যেন নিজে থেকেই ব্যাপারটি আপনাকে জানান। কেননা এতে সম্পর্ক বেঁচে যাওয়ার সুযোগ থাকে। সরাসরি কথা বলুন, নিজেদের মাঝেই মীমাংসা করার চেষ্টা করুন। এতে কাজ না হলে উপযুক্ত প্রমাণসহ বিষয়টি পরিবারের দিকে নিয়ে যান। বড় ধরনের প্রতারণায় পারিবারিক আশ্রয় নিতেই হয়।

যদি পুরো ব্যাপারটি হয়ে থাকে অমূলক

হ্যাঁ। এমনটি হতেই পারে। আমরা কাউকে ভালোবাসলে তাঁকে হারাবার ভয় পাই, ফলে মনে হয় তিনি আমাদেরকে ছেড়ে যাবেন। এই ব্যাপারটি থেকেই আসে অমূলক সন্দেহ। এসব নিয়ে বেশি ভাবার বা নাড়াচারা করার প্রয়োজন নেই। কেননা মনে রাখবেন, ব্যাপারটি সঙ্গী জানলে মনে কষ্ট পেতে পারেন। আর সঙ্গী যদি জেনেই যান, সে ক্ষেত্রে অবশ্যই ক্ষমা চেয়ে নিন। প্রিয়জনের কাছে ক্ষমা চাইলে সম্পর্ক সুন্দর থাকে।

সন্দেহ যেমন অমূলক হয়, তেমনি সন্দেহ কিন্তু সত্যও হয়ে থাকে। কিন্তু বাড়াবাড়ি কোনো কিছুই ভালো নয়। তাই বিশ্বাস ও সন্দেহ কোনো কিছুকেই বাড়তে দেবেন না।

প্রিয় লাইফ/কামরুল