বার্সেলোনার জার্সিতে লিওনেল মেসি এবং তার দুই পুত্র থিয়াগো ও মাতেও। ছবি: সংগৃহীত

আর্জেন্টিনায় ওরা কেন তোমাকে খুন করতে চায়, মেসির কাছে ছেলের প্রশ্ন

আট মাসের বিরতি শেষে আবারও জাতীয় দলে ফিরেছেন এই তারকা ফুটবলার। বিষয়টি নিয়ে বুয়েনেস এইরেসের রেডিও এফএম ৯৪৭-এর সামনে মুখ খুলেছেন মেসি।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ৩০ মার্চ ২০১৯, ১০:৪১ আপডেট: ৩০ মার্চ ২০১৯, ১০:৪১
প্রকাশিত: ৩০ মার্চ ২০১৯, ১০:৪১ আপডেট: ৩০ মার্চ ২০১৯, ১০:৪১


বার্সেলোনার জার্সিতে লিওনেল মেসি এবং তার দুই পুত্র থিয়াগো ও মাতেও। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) বর্তমান ফুটবল বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়ের নাম জানতে চাইলে অনেকেই চোখ বন্ধ করে বলে দেবেন লিওনেল মেসির নাম। ক্লাব ফুটবলে বার্সেলোনার হয়ে অনেক শিরোপাই জিতেছেন তিনি। কিন্তু এখন পর্যন্ত জাতীয় দলের হয়ে কোনো শিরোপাই জেতা হয়নি আর্জেন্টিনার এই প্রাণভোমরার। ৩২ বছরের শিরোপার খরা ঘুচাতে রাশিয়া বিশ্বকাপকে মেসির শেষ সুযোগ বলে মনে করেছিলেন ফুটবল বোদ্ধারা।

এমনকি আর্জেন্টাইন প্রাণভোমরা মেসি নিজেও। কিন্তু রাশিয়াও তাকে খালি হাতেই ফেরাল। কোনোরকমে গ্রুপ পর্ব পার হলেও ফ্রান্সের কাছে হেরে শেষ ষোলোতেই বিদায় নিতে হয়েছে মেসিকে। রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর সাময়িকভাবে জাতীয় দলের বাইরে থাকার সিদ্ধান্ত নেন মেসি। যার জেরে বিশ্বকাপ শেষে ২০১৮ সালে আর্জেন্টিনার হয়ে আর কোনো ম্যাচে অংশ নেননি তিনি।

মাঝের এই সময়টাতে, মেসি আদৌ জাতীয় দলের হয়ে ফিরবেন কিনা তা নিয়ে তৈরি হয় ধোঁয়াশা। তবে আট মাসের বিরতি শেষে আবারও জাতীয় দলে ফিরেছেন এই তারকা ফুটবলার। যদিও তার এই প্রত্যাবর্তন নিয়ে চলে তুমুল সমালোচনা। খোদ আর্জেন্টাইনরাই তার সমালোচনায় মাতে। বিষয়টি নিয়ে বুয়েনেস এইরেসের রেডিও এফএম ৯৪৭ এর সামনে মুখ খুলেছেন মেসি।

সেখানে পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী এই ফুটবলার বলেন, ‘আমি ফেরার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর অনেকেই সেটির সমালোচনা করেছে। আমার ছয় বছর বয়সী ছেলে আমাকে জিজ্ঞেস করছিল, ‘‘বাবা, আর্জেন্টিনায় তোমাকে ওরা কেন খুন করতে চায়?’’ আমি ওকে বলেছি, এটা গুটিকয়েক লোকের কথা। আর্জেন্টিনার হয়ে খেলতে প্রবল ইচ্ছাটা আমি আগেও দেখিয়েছি, এ নিয়ে কারও কাছে আমার কিছু প্রমাণের নেই।’

জাতীয় দলের জার্সিতে বরাবরই সমালোচনার শিকার হন মেসি। ছবি: সংগৃহীত

সময়ের হিসেবে আট মাসেরও বেশি সময় দলের বাইরে থাকার পর ফিরলেন। কি কি বিষয় কাজ করেছে এই সিদ্ধান্তে আসার পেছনে জানতে চাইলে মেসি বলেন, ‘বিশ্বকাপের পর ফেডারেশনের কারও সঙ্গেই কথা হয়নি। এরপর স্কালোনি (আর্জেন্টিনা কোচ) আমাকে কল করে বলেছিলেন কিছুদিন সময় নিতে। এ-ও বলেছিলেন, তিনি চান আমি ফিরে আসি। কারণ তিনি দারুণ একটা প্রকল্প নিয়ে এগোচ্ছেন।’

গনজালো হিগুয়েন অবসরে গেলেন। তরুণ ফুটবলাররা ওঠে আসছেন। সবমিলিয়ে পালাবদলটা কিভাবে দেখছেন মেসি? এ নিয়ে তার ভাষ্য, ‘একটা পালাবদল চলছে, সেটা স্বাভাবিকই। বেশ কয়েক বছর আগেই এটা হওয়া উচিত ছিল। তরুণ খেলোয়াড়রা উঠে আসছে, ওদের সময় দেওয়া দরকার। এদেরও ক্রুশবিদ্ধ করতে পারি না আমরা!’

প্রিয় খেলা/রুহুল