দৌড়ানোটা অনেক দিক দিয়েই দারুণ একটি ব্যায়াম। ছবি: সংগৃহীত

যেভাবে দৌড়ালে আপনি পেতে পারেন ‘সিক্স প্যাক’

দৌড়ালে কি আপনার পেটের পেশির উপকার হয়? বিশেষ করে, আকর্ষণীয় অ্যাবস বা ‘সিক্স প্যাক’ কি তৈরি হতে পারে?

কে এন দেয়া
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০৬ এপ্রিল ২০১৯, ১৫:০৮ আপডেট: ০৬ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:১০
প্রকাশিত: ০৬ এপ্রিল ২০১৯, ১৫:০৮ আপডেট: ০৬ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:১০


দৌড়ানোটা অনেক দিক দিয়েই দারুণ একটি ব্যায়াম। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) দৌড়ানোটা অনেক দিক দিয়েই দারুণ একটি ব্যায়াম। তা হৃদগতি দ্রুত করে, মেদ পোড়ায়, মেটাবলিজম বাড়ায়, এমনকি মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখে। লম্বা সময় বা দ্রুত দৌড়ানোর পর পা ব্যথা করতে থাকে, যাতে বোঝা যায় পায়ের ভালো ব্যায়াম হয়েছে। কিন্তু দৌড়ালে কি আপনার পেটের পেশির উপকার হয়? বিশেষ করে, আকর্ষণীয় অ্যাবস বা ‘সিক্স প্যাক’ কি তৈরি হতে পারে?

কীভাবে দৌড়ালে কোর এক্সারসাইজ হবে অর্থাৎ পেটের পেশির ওপর চাপ পড়বে তার ওপর নির্ভর করবে ফলাফল। আপনি যখন দৌড়ান, তখন আপনাকে ভারসাম্য রাখতে সাহায্য করে পেটের পেশিগুলো। এদেরকে যত কাজ করাবেন, তারা তত শক্তিশালী হবে। তবে এটাও ঠিক যে, কোর শক্তিশালী হলে আপনি ভালো দৌড়াতে পারবেন, কিন্তু শুধু দৌড়ালে এসব পেশি শক্তিশালী হবে না। এর জন্য কিছু পরিমাণে হলেও কোর এক্সারসাইজ করা উচিত।

কোর এক্সারসাইজের পাশাপাশি কিছু কাজে দৌড়ানোর সময়েও পেটের পেশিগুলোকে ব্যবহার করতে পারেন। দৌড়ানোর সময় গভীর করে নিশ্বাস নেওয়ার অভ্যাস করুন। এতে পেটের পেশির ব্যবহার হবে। এ ছাড়া ক্লান্ত হয়ে পড়লে পেটের পেশিগুলোকে শক্ত করে ফেলুন, এতেও উপকার হতে পারে।

সিক্স প্যাক বা সমান পেট যদি আপনার লক্ষ্য হয়, তবে অন্যান্য ব্যায়ামের পাশাপাশি রাখতে পারেন দৌড়ানো। কারণ তা মেদ কমায়, ফলে পেটের মেদ কমতে শুরু করবে এবং আপনার সিক্স প্যাক দৃশ্যমান হবে। অবশ্য দৌড়ানোর পর ক্লান্তি ও ক্ষুধার বশবর্তী হয়ে বেশি করে খেয়ে ফেলা যাবে না। দৌড়ানোর আগে ১০ মিনিট কোর বা অ্যাব এক্সারসাইজ করুন, তাহলেই উপকার পাবেন।

সূত্র: পপসুগার

প্রিয় সংবাদ/আজাদ চৌধুরী