দুরন্ত টেলিভিশনে সপ্তম মৌসুমে পদার্পন উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কলাকুশলীরা। ছবি: সংগৃহীত

শুরু হচ্ছে দুরন্ত টেলিভিশনের সপ্তম মৌসুম, থাকছে নতুন চমক

প্রতিবারের মতো এবারও অনুষ্ঠানমালায় যুক্ত হয়েছে দেশী-বিদেশী নতুন নতুন অনেক অনুষ্ঠান

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ০৭ এপ্রিল ২০১৯, ১২:৫৭ আপডেট: ০৭ এপ্রিল ২০১৯, ১২:৫৯
প্রকাশিত: ০৭ এপ্রিল ২০১৯, ১২:৫৭ আপডেট: ০৭ এপ্রিল ২০১৯, ১২:৫৯


দুরন্ত টেলিভিশনে সপ্তম মৌসুমে পদার্পন উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কলাকুশলীরা। ছবি: সংগৃহীত

সপ্তম মৌসুমে পদার্পন উপলক্ষ্যে নতুন চমক নিয়ে হাজির হয়েছে দুরন্ত টেলিভিশন। প্রতিবারের মতো এবারও অনুষ্ঠানমালায় যুক্ত হয়েছে দেশী-বিদেশী নতুন নতুন অনেক অনুষ্ঠান। বাংলাদেশের সকল মা বাবা ও শিশুদের জন্য থাকছে বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান। বিনোদনের পাশাপাশি শিশুরা যাতে আনন্দের সাথে কিছু শিখতেও পারে, অনুষ্ঠানগুলো সেভাবে তৈরী করা হয়েছে।    

এ উপলক্ষ্যে ০৬ এপ্রিল শনিবার বনানীতে দুরন্ত টেলিভিশনের কার্যালয়ে একটি সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে সপ্তম মৌসুমের বিশেষ অনুষ্ঠঅনমালা প্রচার শুরু হবে।    

সংবাদ সম্মেলনে দুরন্ত টেলিভিশনের সপ্তম মৌসুমের অনুষ্ঠান নিয়ে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন টেলিভিশনের অনুষ্ঠান প্রধান মোহাম্মদ আলী হায়দার। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ধারাবাহিক নাটক ‘গুড্ডুবুড়া’র পরিচালক তোফায়েল সরকার, ‘মনের জাদুকর’র পরিচালক দীপংকর দীপন, শিল্পী লাকী ইনাম, ‘ছুটির দিনে’র পরিচালক বদরুল আলম রিয়েল ও শিল্পী মুনীর হাসান, ‘আনন্দ উৎসব’র পরিচালক ফাহিমা আহমেদ চৈতী, বিদেশী অনুষ্ঠানসমূহের প্রযোজক বাকার বকুলসহ অন্যান্য অনুষ্ঠানসমুহের অনুষ্ঠানের শিল্পী, শিশুশিল্পী, পরিচালক, প্রযোজক, কলাকুশলী এবং দুরন্ত টেলিভিশনের কর্মকর্তারা কলা-কুশলীবৃন্দ।   

ধারাবাহিক নাটক ‘গুড্ডুবুড়া’র পরিচালক তোফায়েল সরকার বলেন, ‘নাটকটি খুবই সহজ সরল ধরণের। ছোট্ট ছেলে গুড্ডুবুড়াকে ঘিরে যেসব মজার ঘটনা ঘটে সেগুলো নিয়েই নাটক। দুষ্টু মিষ্টি এই গুড্ডুবুড়ার আজব আজব কাজ ও কথাবার্তাগুলো সবাইকেই আনন্দ দেবে।’

ধারাবাহিক নাটক ‘মনের জাদুকর’র পরিচালক দীপংকর দীপন ধারাবাহিক বলেন, ‘মনের জাদুকর নাটকটির ভেতর অভিনবত্ব রয়েছে। পুরো নাটকটির কাহিনী নির্মিত হয়েছে মানুষের মনের আবেগ ঘিরে। একটা শিশুর মনের ভেতর কি আছে? সে কখনো রাগ হচ্ছে, কখনো আনন্দিত হচ্ছে, কখনো বা তার রাগ হচ্ছে। এগুলো সবই মনের আবেগের প্রকাশ। এই আবেগগুলোকে আলাদা চরিত্র দানের মধ্য দিয়ে তৈরি হয়েছে এই নাটক।’

বিদেশী কার্টুনের প্রযোজক বাকার বকুল বলেন, ‘আমরা সবসময় এমন কার্টুন নির্বাচনের চেষ্টা করি যা শিশুদের সাথে যায়। আমরা তো যে কোনো কার্টুনই প্রচার করতে পারিনা। তারপর সে কার্টুনগুলোর ভাষা শিশুদের উপযোগী করে অনুবাদ করা হয়। এবারের নতুন আকর্ষণ স্পঞ্জবব, চ্যাপলিন, ল্যাসি ও দ্যা জাঙ্গল বুক। শিশুদের খুবই ভালো লাগবে এবারের কার্টুনগুলি।’

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি