সাইফ আলি খান ও কারিনা কাপুরের পুত্র তৈমুর। ছবি: সংগৃহীত

তৈমুর অন্ধ হয়ে যাবে, এই কথাটি কেন বললেন সাইফ?

তৈমুরের ছবি তুলতে গেলে মেজাজ হারিয়ে সাইফ আলি খান বলেন, ‘ব্যস, বন্ধ করুন। বাচ্চাটা অন্ধ হয়ে যাবে।’

শামীমা সীমা
সহ সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০:১৪ আপডেট: ১৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০:২৭
প্রকাশিত: ১৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০:১৪ আপডেট: ১৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০:২৭


সাইফ আলি খান ও কারিনা কাপুরের পুত্র তৈমুর। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) জন্মের পর থেকেই তারকাখ্যাতি পেয়েছে কারিনা কাপুর খানের পুত্র তৈমুর আলি খান। এখন প্রায় আড়াই বছর বয়স তার। বাইরে বের হলেই ছবিশিকারি সাংবাদিকরা পিছু নেয় তার। এরই মধ্যে প্লে স্কুলে নিয়মিত যাতায়াত করছে, সেই সঙ্গে বাবা-মায়ের সঙ্গেও ঘোরাঘুরি করে বেড়াচ্ছে তৈমুর। সাংবাদিকদের ক্যামেরার সঙ্গেও হয়ে গেছে তার সখ্যতা। ক্যামেরা দেখলে হাত তুলে অভিবাদন জানাতেও ভুল করে না তৈমুর।

সম্প্রতি বিমানবন্দরে সাইফ আলি খান, কারিনা কাপুর ও তৈমুরকে দেখে স্বাভাবিকভাবেই ছবিশিকারিরা একের পর এক ছবি তুলতে শুরু করেন। একাধারে ক্যামেরার ফ্ল্যাশ জ্বলতে শুরু করে। বাবার ঘাড়ে চড়ে তৈমুরও ছবিশিকারি সাংবাদিকদের সঙ্গে হাত নাড়তে শুরু করে দেয়। ঠিক তখনই মেজাজ হারান পতৌদি নবাব সাইফ। তিনি বলে উঠলেন, ‘ব্যস, বন্ধ করুন। বাচ্চাটা অন্ধ হয়ে যাবে।’

সাইফ আলি খান ও কারিনা কাপুর দম্পতির পুত্র তৈমুর। ছবি: সংগৃহীত

এরপর সাংবাদিকরা সাইফকে ছবি তোলার জন্য পোজ দিতে অনুরোধ করে। তখনও বিরক্তি দেখান নবাব। তিনি বলেন, ‘ছবি তুলতে চাইলে এমনিই তোলো। পোজ দেওয়ার কি আছে?’ বলেই হেঁটে বিমানবন্দর থেকে তৈমুরকে নিয়ে বের হয়ে গাড়িতে উঠে যান সাইফ।

তবে সাংবাদিকদের নিরাশ করেননি কারিনা। কিছুক্ষণের জন্য দাঁড়িয়ে ছবি তোলার সুযোগ দেন সাংবাদিকদের।

যদিও এর আগে কখনো সাইফ কিংবা কারিনা কেউই তৈমুরকে নিয়ে এমনভাবে প্রতিক্রিয়া দেননি।

কারিনা আগে সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, তৈমুরের জানা উচিত, সে তারকা সন্তান। সে কারণে তাকে কখনই মিডিয়া থেকে আড়ালে রাখা হয়নি। আর তাই সাইফের মেজাজ হারানোর ভিডিওটি শেয়ার হওয়া মাত্রই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।

সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

প্রিয় বিনোদন/শিরিন