অনুশীলনে তাসকিন আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত

তাসকিনের লবিং করার নিউজ ভুয়া, বললেন প্রধান নির্বাচক

এমন খবর প্রকাশিত হওয়ায় রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করেন প্রধান নির্বাচক।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল ২০১৯, ১৯:৩১ আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০১৯, ২০:০২
প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল ২০১৯, ১৯:৩১ আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০১৯, ২০:০২


অনুশীলনে তাসকিন আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ইনজুরি থেকে ফিরে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) দিয়ে নিজেকে প্রমাণ করেও ভাগ্যকে সঙ্গে পাননি তাসকিন আহমেদ। আবারও ইনজুরির ছোবলে ছিটকে যান বাংলাদেশের ডানহাতি এই পেসার। বিশ্বকাপকে লক্ষ্য করে ইনজুরি কাটিয়ে উঠতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছেন তিনি। স্বপ্ন পূরণ হয়নি তার। ১৫ সদস্যের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে তরুণ এই গতি তারকাকে নেওয়া হয়নি। খবরটি শুনেই কান্নায় ভেঙে পড়েন তাসকিন।

তাসকিন বড় আঘাতটি পেয়েছেন ১৭ এপ্রিল। এদিন বাংলাদেশের একটি সংবাদমাধ্যম তাদের একটি প্রতিবেদনে জানায়, বিশ্বকাপ স্কোয়াডে জায়গা পেতে লবিং করেছেন তাসকিন। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাচক থেকে শুরু করে পরিচালক এমনকি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকে পর্যন্ত মোবাইলে ম্যাসেজ পাঠিয়েছেন তিনি, সবাইকে অনুরোধও করেছেন। কিন্তু এমন খবর কানেই তুললেন না প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু

খবরটিকে ভুয়া বলে উড়িয়ে দিলেন তিনি। বিষয়টি জানাতেই রেগে যান প্রধান নির্বাচক। এমন খবরের নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশের সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, ‘এমন খবরের সত্যতা কী? এটা অথেনটিক কোনো নিউজ বলে আমি মনে করি না। এটার বিন্দুমাত্র ভিত্তি নেই, পুরোপুরি ভুয়া খবর।’ এমন খবর প্রকাশিত হওয়ায় রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করেন মিনহাজুল আবেদীন।

বিসিবির ক্রিকেট অপরারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খানও এই খবরকে ভিত্তিহীন বলেছেন। তাসকিনের কাছ থেকে কোনো ম্যাসেজ পাননি বলে জানিয়েছেন তিনি।

এমন খবরে তাসকিনও রীতিমতো অবাক। প্রিয়.কমকে তিনি বলেন, ‘এমন খবর কীভাবে হতে পারে, বুঝে উঠতে সময় লাগছে। আমি দেখিনি খবরটা, তবে শুনে খুব হতাশ হয়েছি। খবরে যেটা বলা হয়েছে, তেমন কিছু হওয়ার প্রশ্নই আসে না। আমি কাউকে এমন কোনো ম্যাসেজ পাঠাইনি। নির্বাচক-পরিচালকরা আমার অভিভাবক। সেই হিসেবে কথা হতে পারে, কিন্তু এমন নয়। এমন খবর প্রকাশ করা ঠিক নয়।’

বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পেতে তাসকিন লবিং করেছেন দাবি করে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পাওয়ার জন্য রীতিমতো লবিং করে গেছেন তাসকিন আহমেদ! সংশ্লিষ্ট কর্তা ব্যক্তিদের কাছে নিয়মিত ধর্না দিয়ে গেছেন তিনি। অনুরোধ-উপরোধ যা করার- সবই করেছেন তাসকিন। মোবাইলে ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়েও তিনি মন গলানোর চেষ্টা করেছেন প্রধান নির্বাচক থেকে শুরু করে প্রভাবশালী বোর্ড পরিচালকদের। এমনকি জানা গেছে, বোর্ড প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপনকেও ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়েছিলেন তাসকিন।

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...