ছবি: সংগৃহীত

‘শাহরুখ-করণ নিচু মনের মানুষ’

আশির দশকের এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রেমে পড়েছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ক্রিকেটার ভিভ রিচার্ডসনের।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ২০ এপ্রিল ২০১৯, ০৯:৩২ আপডেট: ২০ এপ্রিল ২০১৯, ১২:৫০
প্রকাশিত: ২০ এপ্রিল ২০১৯, ০৯:৩২ আপডেট: ২০ এপ্রিল ২০১৯, ১২:৫০


ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) নিজের ব্যক্তিগত জীবন থেকে শুরু করে মেয়ে মাসাবা, সঙ্গে ক্যারিয়ারসহ নানা বিষয় নিয়ে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী নীনা গুপ্তা।

বরাবরই নিজের জীবনকে খোলা পাতার মতো রেখেছেন নীনা। আশির দশকের এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রেমে পড়েছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ক্রিকেটার ভিভ রিচার্ডসনের।

প্রেম চলাকালীনই নীনার কোল আলো করে আসে তাদের একমাত্র সন্তান মাসাবা। মাসাবার জন্মের পর অবশ্য ভিভ রিচার্ডসনের সঙ্গে সেভাবে যোগাযোগ ছিল না নীনার। একা হাতেই বড় করেন মেয়ে মাসাবাকে। পরে অবশ্য মাসাবা ও নীনার সঙ্গে যোগাযোগ করেন ভিভ রিচার্ডসন।

কিন্তু আশির দশকে নীনার পক্ষে সিঙ্গল মাদার হওয়া অবশ্য সহজ ছিল না। অর্থনৈতিক, সামাজিক নানা বাধা পার হয়ে তবেই মাসাবাকে বড় করতে পেরেছেন নীনা।

সাক্ষাৎকারে সেসব নিয়েই কথা বলেছেন ‘বধাই হো’ অভিনেত্রী। শুধু মাসাবেকে নিয়েই নয়, নিজের ক্যারিয়ারে চলার পথে তাকে যেভাবে নানা সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়েছে, সেকথাও বলেছেন তিনি।

বলিউডের অন্যতম দুই গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব শাহরুখ খান এবং করণ জোহরকে অত্যন্ত খারাপ ও নিচু মনের মানুষ বলে মন্তব্য করেন এই অভিনেত্রী। অবশ্য এ বিষয়টি এক্কেবারেই আক্রমণ করে বলেননি অভিনেত্রী। মজা করেই শাহরুখ-করণ সম্পর্কে এই কথা বলেন তিনি।

নীনার বক্তব্য ছিল ‘বিমানে যখন শাহরুখ-করণের সঙ্গে আলাপ হয় তখন ওরা নিজেই আমায় ফোন নম্বর দিলো। তারপর যখনই ফোন করি আর ফোনই তোলে না! খুব খারাপ। শাহরুখ, করণকে ফোন করছিলেন যাতে তারা মাসাবাকে বোঝান যে সে যেন অভিনয়কে ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে না নেয়। কারণ মাসাবা অভিনয়ে আসুক তিনি চাননি।

নীনার কথায়, মাসাবার শারীরিক গঠন যেমন তাতে সে বলিউডে কখনই কাজ পাবে না, তার জন্য তাকে বিদেশে যেতে হবে। পরবর্তীকালে মাসাবা অবশ্য ফ্যাশন ডিজাইনার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। নীনা চেয়েছেন তার মেয়ে লেখালেখিটা চালিয়ে যাক। কারণ সে খুবই ভালো লেখে।

প্রিয় বিনোদন/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

এ কোন অনন্ত জলিল

প্রিয় ২০ ঘণ্টা, ১৮ মিনিট আগে

loading ...