তেলেগু অভিনেত্রী প্রশান্তি গ্যালারিতে মদ্যপ অবস্থায়। ছবি: সংগৃহীত

আইপিএলের ম্যাচে গ্যালারিতে মদ্যপ অভিনেত্রীর তুলকালাম কাণ্ড (ভিডিও)

ওই অভিনেত্রী এবং তার বাকি পাঁচ বন্ধুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আপাতত চলছে জিজ্ঞাসাবাদ।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১৩:১২ আপডেট: ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১৪:২২
প্রকাশিত: ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১৩:১২ আপডেট: ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১৪:২২


তেলেগু অভিনেত্রী প্রশান্তি গ্যালারিতে মদ্যপ অবস্থায়। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ১২তম আসরের ৩৮তম ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও কলকাতা নাইট রাইডার্স। এই ম্যাচে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৫৯ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় কেকেআর।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেট ও ৩০ বল হাতে রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। এদিন রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ফেটে পড়েছিল দর্শকদের উচ্ছ্বাসে। কখনো ডেভিড ওয়ার্নারের ছক্কায় আবার কখনো জনি বেয়ারস্টোর চারে হাততালিতে মুখর হচ্ছিলেন ক্রিকেট সমর্থকরা।

এর মাঝেই গ্যালারিতে ঘটে যায় চোখ কপালে ওঠার মতো এক ঘটনা। রাজীব গান্ধী ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামের  কর্পোরেট বক্সে ৬ জনের একটি দলকে হই-হুল্লোড় করতে দেখা যায়। পরবর্তী সময়ে জানা যায়, তাদের প্রত্যেকেই মদ্যপ অবস্থায় ছিল। ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, ওই গ্রুপে ছিলেন তেলুগু অভিনেত্রী প্রশান্তি!

তেলেগু অভিনেত্রী ও উপস্থাপিকা প্রশান্তি। ছবি: সংগৃহীত

কর্পোরেট বক্সে ওই গ্রুপটির পাশেই বসেছিলেন সন্তোষ নামের এক ব্যক্তি। প্রশান্তিদের কর্মকাণ্ডে বিরক্ত হয়ে উঠে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন তিনি। তার অভিযোগের ভিত্তিতে তেলেগু অভিনেত্রী এবং তার বাকি ৫ বন্ধুকে গ্রেফতার করে পুলিশ। প্রমাণ হিসেবে তারা বের করে ওই সময়ের সিসিটিভি ফুটেজ।

যেখানে স্পষ্ট দেখা যায়, মদ খেয়ে মাতলামি করছেন প্রশান্তিসহ তার পাঁচ বন্ধু। এক পর্যায়ে দেখা যায়, সামনের সিটে বসে থাকা এক যুবকের পিঠে চড়ে বসছেন ওই অভিনেত্রী। সিসিটিভি ফুটেজের ভিডিও প্রকাশ পাওয়ার পর তা ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এই ঘটনায় চলছে তেলেগু ওই অভিনেত্রী ও উপস্থাপিকার তুমুল সমালোচনা।

আইপিসি ৩৪১, ১৮৮ এবং ৫০৬ ধারায় ইতোমধ্যে প্রশান্তিসহ তার পাঁচ বন্ধুর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন হায়দরাবাদ পুলিশ। আপাতত থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তাদের। 

প্রিয় খেলা/আশরাফ