ব্রুনাই দারুস সালামের সুলতান হাজি হাসানাল বলকিয়ার আমন্ত্রণে গত ২১ থেকে ২৩ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী সে দেশ সফর করেন। ছবি: সংগৃহীত

ব্রুনাই সফর দুই দেশের সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় পৌঁছে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

শুক্রবার বিকেলে শেখ হাসিনা তার সরকারি বাসভবন গণভবনে সাম্প্রতিক ব্রুনাই সফর নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এ কথা বলেন।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ২০:২৫ আপডেট: ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ২০:২৫
প্রকাশিত: ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ২০:২৫ আপডেট: ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ২০:২৫


ব্রুনাই দারুস সালামের সুলতান হাজি হাসানাল বলকিয়ার আমন্ত্রণে গত ২১ থেকে ২৩ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী সে দেশ সফর করেন। ছবি: সংগৃহীত

(বাসস) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সাম্প্রতিক ব্রুনাই সফরকে অত্যন্ত সফল এবং ফলপ্রসূ আখ্যায়িত করে বলেছেন, ‘সার্বিক বিবেচনায় এ সফর দু্ই দেশের সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় পৌঁছে দিয়েছে।’

২৬ এপ্রিল, শুক্রবার বিকেলে শেখ হাসিনা তার সরকারি বাসভবন গণভবনে সাম্প্রতিক ব্রুনাই সফর নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এ কথা বলেন।

ব্রুনাই সফর সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সফরকালে ব্রুনাইয়ের সুলতান আমার এবং আমার সফরসঙ্গীদের প্রতি যে আতিথেয়তা ও সম্মান দেখিয়েছেন, তা ছিল খুবই বিরল। আমাদের এ সফর দুই দেশের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে আর সুদৃঢ় করবে বলে আমার বিশ্বাস।’

ব্রুনাই দারুস সালামের সুলতান হাজি হাসানাল বলকিয়ার আমন্ত্রণে গত ২১ থেকে ২৩ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী সে দেশ সফর করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সফরকালে আমি ব্রুনাইয়ের সুলতান হাজি হাসানাল বলকিয়ার সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় আলোচনাসহ সুলতান ও রাজপরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সাক্ষাৎ এবং বাংলাদেশ-ব্রুনাই বিজনেস ফোরামের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানসহ বেশ কিছু কর্মসূচিতে যোগ দেই।’

ব্রুনাইয়ের সুলতানের সরকারি বাসভবন নুরুল ইমানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ব্রুনাইয়ের সুলতান হাসানাল বলকিয়ার মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে দুই দেশের মধ্যে কৃষি, মৎস্য, পশুসম্পদ, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি এবং এলএনজি সরবরাহসংক্রান্ত সাতটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। তিনি ব্রুনাইয়ের রাজধানীতে বাংলাদেশ হাইকমিশনের নতুন চ্যান্সেরি ভবনের ভিত্তিপ্রস্তরও স্থাপন করেন।

উল্লেখ্য, ব্রুনাই দারুস সালাম ১৯৮৪ সালে স্বাধীনতা লাভ করে। স্বাধীনতা লাভের পর পরই দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপিত হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে আমি দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান সম্পর্ককে আরও সুদৃঢ় করার লক্ষ্যে উচ্চ পর্যায়ে সফর বিনিময়, বাণিজ্য, বিনিয়োগ, খাদ্য, কৃষি, মৎস্য, জ্বালানি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, বিমান যোগাযোগ ইত্যাদি ক্ষেত্রে সহযোগিতার সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব পেশ করি।’

তিনি বলেন, ব্রুনাইয়ের পক্ষে সুলতান তার প্রস্তাবগুলোকে স্বাগত জানান এবং তা বাস্তবায়নে একসঙ্গে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ব্রুনাই দারুস সালাম খাদ্য ও কৃষি ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অর্জন উল্লেখপূর্বক এ সকল ক্ষেত্রে ব্যাপকভিত্তিক দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার আগ্রহ প্রকাশ করে। কৃষি ক্ষেত্রে কারিগরি সহযোগিতাসহ যৌথভাবে খামার স্থাপন, কৃষি প্রক্রিয়াজাতকরণ এবং কৃষিপণ্যের অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য সম্ভাবনা বিবেচনার বিষয়ে দুই পক্ষ একমত হয়।’

‘দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধির লক্ষ্যে ব্যবসায়ীদের মধ্যে যোগাযোগ বৃদ্ধি, অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চালুর জন্য সমীক্ষা পরিচালনা এবং ভবিষ্যতে দ্বৈতকর অব্যাহতি চুক্তি ও পারস্পরিক বিনিয়োগ বৃদ্ধি এবং সংরক্ষণ চুক্তির সম্ভাব্যতা বিবেচনার সিদ্ধান্ত হয়। বিনিয়োগের সম্ভাবনাময় খাত হিসেবে খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ, জ্বালানি, তথ্যপ্রযুক্তি, জাহাজ নির্মাণ শিল্প, পর্যটন অবকাঠামো, পাট শিল্প ইত্যাদি প্রাথমিকভাবে চিহ্নিত করা হয়।’

এ ছাড়া দ্বিপাক্ষিক বিনিময় ও সহযোগিতা কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার স্বার্থে দুই দেশের মধ্যে আর্থিক খাতে সহযোগিতা বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত হয়। সামরিক খাতে দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধির বিষয়ে উভয় দেশ একমত হয়। একই সঙ্গে দুই দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে প্রবাসী কর্মীদের অবদান উল্লেখপূর্বক এ ক্ষেত্রে নিয়মিত দ্বিপাক্ষিক আলোচনার অন্তর্ভুক্ত করে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের বিষয়ে দুই দেশই একমত হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি ব্রুনাইয়ের সুলতানকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালে তিনি তা গ্রহণ করেন এবং সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফরের ইচ্ছা ব্যক্ত করেন।’

কৃষিমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আবদুর রাজ্জাক, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু এ সময় সংবাদ সম্মেলনের মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়া মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা, সংসদ সদস্য, আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা, বিভিন্ন গণমাধ্যম এবং সংবাদ সংস্থার সম্পাদক, সিনিয়র সাংবাদিক ও প্রতিনিধিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

প্রিয় সংবাদ/কামরুল/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...