ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর অর্থ দিয়ে যুদ্ধবিধ্বস্ত ফিলিস্তিনি শিশুদের ইফতার করানো হচ্ছে। ছবি: সংগৃহীত

যুদ্ধবিধ্বস্ত ফিলিস্তিনিদের ইফতারের জন্য ১৪ কোটি টাকা দান রোনালদোর

এর আগেও এমন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন রোনালদো। ২০১২ সালের নভেম্বরে, পুরস্কার হিসেবে জেতা গোল্ডেন বুট বিক্রি করে দিয়ে ফিলিস্তিনিদের জন্য অর্থ দান করেছিলেন।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৭ মে ২০১৯, ১৪:৩৪ আপডেট: ১৭ মে ২০১৯, ১৫:২৩
প্রকাশিত: ১৭ মে ২০১৯, ১৪:৩৪ আপডেট: ১৭ মে ২০১৯, ১৫:২৩


ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর অর্থ দিয়ে যুদ্ধবিধ্বস্ত ফিলিস্তিনি শিশুদের ইফতার করানো হচ্ছে। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) বর্তমান সময়ের সর্বোচ্চ উপার্জনকারী ফুটবলারদের মধ্যে একজন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। অর্থ উপার্জনের পাশাপাশি মানবতার সেবায় দু’হাতে খরচ করছেন পর্তুগিজ এই তারকা। দুস্থ মানবতা এবং শিশুদের সাহায্যে সবসময় এগিয়ে আসেন তিনি। অসহায় মানুষের সাহায্যার্থে তার জুড়ি মেলা ভার।

আয়ের বেশ বড় একটা অংশ নিয়মিতই দান করেন মানবসেবায় নিয়োজিত বিভিন্ন তহবিলে। এবার আরও একবার অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ালেন রোনালদো। ফিলিস্তিনের যুদ্ধবিধ্বস্ত মুসলমানদের ইফতারের জন্য দেড় মিলিয়ন ইউরো (বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ১৪ কোটি ২০ লাখ ২৪ হাজার টাকা) দান করলেন জুভেন্টাসের এই তারকা।

শুরু হয়েছে মুসলমানদের পবিত্র মাস মাহে রমজান। এই মাসে আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য দীর্ঘ ৩০ দিন রোজা রেখে  থাকেন সারা বিশ্বের মুসলমানরা। যদিও রাজনৈতিক পরিস্থিতির কারণে এবার আর আগের মতো শান্তিতে রোজা রাখতে পারছে না ফিলিস্তিনের জনগণ। প্রতিনিয়ত তাদের ওপর হামলা করে যাচ্ছে ইসরায়েল।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে জানা যায়, ইসরায়েলের হামলায় বিপর্যস্ত গাজার অসহায় মুসলমানদের ইফতারির জন্য দেড় মিলিয়ন ইউরো দান করেছেন রোনালদো। ওই টাকায় গাজার মুসলমানদের ইফতারি করানো হচ্ছে।

জুভেন্টাসের এই তারকা ফরোয়ার্ডের এমন মহিমান্বিত কর্মে প্রশংসার ঝড় বইছে মুসলিম বিশ্বে। বিভিন্ন স্থানের মুসলমানরা সম্মান জানিয়েছেন ৩৪ বছর বয়সী এই তারকা ফুটবলারকে।

এর আগে ২০১২ সালের নভেম্বরে পুরস্কার গোল্ডেন বুট বিক্রি করে দিয়ে ফিলিস্তিনিদের জন্য অর্থ দান করেছিলেন রোনালদো। এমনকি পরের বছর বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচ শেষে ইসরায়েল খেলোয়াড়ের সঙ্গে জার্সি বদলে অস্বীকৃতিও জানিয়েছিলেন এই পর্তুগিজ ফুটবলার।

প্রিয় খেলা/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...