শিক্ষক মাসুদুর রহমান (বামে), শামসুদ্দিন জুন্নুন ওরফে কসাই জুন্নুন (ডানে)। ছবি: সংগৃহীত

শিক্ষককে মারধরের ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা জুন্নুন গ্রেফতার (ভিডিও)

গ্রেফতারকৃত শামসুদ্দিন জুন্নুন ওরফে কসাই জুন্নুন পাবনা সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি এবং শহরের শালগাড়ীয়া মহল্লার মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

আমিনুল ইসলাম মল্লিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৮ মে ২০১৯, ১৫:৫০ আপডেট: ১৮ মে ২০১৯, ১৫:৫০
প্রকাশিত: ১৮ মে ২০১৯, ১৫:৫০ আপডেট: ১৮ মে ২০১৯, ১৫:৫০


শিক্ষক মাসুদুর রহমান (বামে), শামসুদ্দিন জুন্নুন ওরফে কসাই জুন্নুন (ডানে)। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) পাবনা সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক মাসুদুর রহমানের ওপর হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা শামসুদ্দিন জুন্নুন ওরফে কসাই জুন্নুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

১৮ মে, শনিবার তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস এ তথ্য সাংবাদিকদের জানিয়েছেন। গ্রেফতারকৃত শামসুদ্দিন জুন্নুন পাবনা সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি এবং শহরের শালগাড়ীয়া মহল্লার মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

উল্লেখ্য, গত ৬ মে পাবনা সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজে এইচএসসি পরীক্ষা চলার সময় ১০৬ নম্বর কক্ষে নকলের দায়ে দুই শিক্ষার্থীর খাতা জব্দ করেন বাংলা বিভাগের প্রভাষক মাসুদুর রহমান। এ ঘটনার জেরে ১২ মে কলেজ  থেকে বের হওয়ার সময় কলেজ গেটে ছাত্রলীগ কর্মীরা শিক্ষক মাসুদুরকে মারধরে করেন। ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়লে বিষয়টি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসে।

বুধবার রাতেই কলেজের অধ্যক্ষ এসএম আবদুল কুদ্দুস বাদী হয়ে দুজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত তিন-চারজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ বৃহস্পতিবার সকালে এই মামলায় জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার গোকুলনগর গ্রামের মো. শাহেদ আলীর ছেলে সজল ও পাবনা সদর উপজেলার মালঞ্চি গ্রামের ইউসুফ আলী শেখের ছেলে শাফিন শেখকে গ্রেফতার করে।

কিন্তু সিসিটিভির ফুটেজে শামসুদ্দিন জুন্নুনকে দেখা গেলেও রহস্যজনক কারণে অধ্যক্ষ এসএম আবদুল কুদ্দুস তার নাম বাদ দিয়ে মামলা দায়ের করেন এবং পুলিশও তার নাম এড়িয়ে যান। এ ঘটনায় বিসিএস সাধারণ শিক্ষকরাও দেশব্যাপী নিন্দা ও প্রতিবাদ কর্মসূচি শুরু করেন। অবশেষে পুলিশ শনিবার তাকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।

দেখুন মারধরের সেই ভিডিও।

প্রিয় সংবাদ/আজাদ চৌধুরী