ইংল্যান্ডের পথে বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা। ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বকাপের দেশে বাংলাদেশ, দেখুন ছবি ও ভিডিওতে

লন্ডন থেকে তিন ঘণ্টার বাস জার্নি শেষে টিম টাইগার্স লেস্টার পৌঁছেছে বাংলাদেশ সময় শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটায়।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৯ মে ২০১৯, ১৩:০৬ আপডেট: ১৯ মে ২০১৯, ১৩:০৬
প্রকাশিত: ১৯ মে ২০১৯, ১৩:০৬ আপডেট: ১৯ মে ২০১৯, ১৩:০৬


ইংল্যান্ডের পথে বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) সফল আয়ারল্যান্ড মিশন শেষে এবার সত্যিকার অর্থে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করলো বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। ১৯ মে, রবিবার প্রথম প্রহরে ইংল্যান্ডের লেস্টারে পৌঁছছেন সাকিব আল হাসান-মুশফিকুর রহিমরা।

প্রথমবারের মতো ত্রিদেশীয় সিরিজ জয়। যদিও ইংল্যান্ড যাওয়ার তাড়ায় শিরোপা জয়ের উদযাপনে তেমন বাড়তি কোনো আড়ম্বর ছিল না। চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই নতুন মিশনে যাত্রা শুরু করেন সৌম্য সরকার, মুস্তাফিজুর রহমানরা। এবার বিশ্বকাপ রাঙানোর পালা। সে উদ্দেশে আয়ারল্যান্ড থেকে শনিবার রাতেই লন্ডনে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ দল। 

আয়ারল্যান্ড ছাড়ার আগে সৌম্য-সৈকত। ছবি: সংগৃহীত

চওড়া হাসির সেলফি দিয়ে মুস্তাফিজুর রহমান শনিবার রাতেই জানান দেন, ডাবলিন ছেড়েছেন। অন্যদিকে মধ্যরাতে সৌম্য সরকার আরেকটি ছবি পোস্ট করে ভক্তদের জানান, বাংলাদেশ দল পৌঁছে গেছে বিশ্বকাপের দেশ ইংল্যান্ডে।

বাসে ক্রিকেটারদের সেলফি। ছবি: সংগৃহীত

লন্ডন থেকে তিন ঘণ্টার বাস জার্নি শেষে ক্রিকেটাররা লেস্টার পৌঁছেছে বাংলাদেশ সময় শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটায়। সেখানে বিসিবির খরচে হবে চার দিনের অনুশীলন ক্যাম্প। আগামী বৃহস্পতিবার কার্ডিফে যাবে দল। ওই দিন থেকে বাংলাদেশ থাকবে আইসিসির প্রটোকলে, পুরো দল নেবে বিশ্বকাপ আয়োজক দেশের আতিথেয়তা।

বাসে সৌম্য-রাহী-মোসাদ্দেক-রুবেল। ছবি: সংগৃহীত

পুরো দল অবশ্য লন্ডনে যায়নি। ছুটি নিয়ে ঢাকায় ফিরেছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। অন্যদিকে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে দুবাই গেছেন তামিম ইকবাল।

লেস্টারে পৌঁছেছে টাইগাররা, দেখুন ভিডিওতে-

২৪ মে থেকেই শুরু হবে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচগুলো। তবে বাংলাদেশের প্রস্তুতি ম্যাচ দুইটি হলো ২৬ ও ২৮ মে, কার্ডিফে। তাই ২৩ মে লেস্টার ছেড়ে কার্ডিফে যাবে বাংলাদেশ দল। ওইদিনই দুবাই থেকে তামিম ইকবাল এবং দেশ থেকে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা দলের সঙ্গে যোগ দেবেন।

আগামী ২ জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওভালে শুরু হবে টাইগারদের বিশ্বকাপ মিশন।

প্রিয় খেলা/রুহুল