আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। ফাইল ছবি

গণমাধ্যমে দেওয়া বিবৃতির ব্যাখা দেবে সুপ্রিম কোর্ট

১৬ মে আদালতে বিচারাধীন মামলার বিষয়ে সংবাদ প্রচার ও প্রকাশ করা থেকে বিরত থাকতে সাংবাদিকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন একটি বিজ্ঞপ্তি দেয়।

আমিনুল ইসলাম মল্লিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২০ মে ২০১৯, ১৭:০২ আপডেট: ২০ মে ২০১৯, ১৭:০২
প্রকাশিত: ২০ মে ২০১৯, ১৭:০২ আপডেট: ২০ মে ২০১৯, ১৭:০২


আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) বিচারাধীন মামলার বিষয়ে সংবাদ না করতে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন যে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে, সে বিষয়ে তারা দ্রুতই ব্যাখ্যা দেবেন বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক

১৯ মে, সোমবার সুপ্রিম কোর্টে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এমন কথা জানান তিনি।

প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সাক্ষাতের কারণ জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘আমার সঙ্গে প্রধান বিচারপতির মাঝে মাঝে কথা হয়েই থাকে। তাই আমার এখানে আসা অস্বাভাবিক কিছু না।’

সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া বিজ্ঞপ্তির বিষয়ে প্রধান বিচারপতির সঙ্গে আলোচনা হয়েছে কি না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘আমি নিশ্চয়ই এ বিষয়ে কথা বলেছি। আলাপচারিতা চলছে, কিছুটা (বিজ্ঞপ্তি নিয়ে) যদি ভুল বুঝাবুঝি হয়ে থাকে, সেই ব্যাপারটা তাদের (আপিল বিভাগের বিচারপতিদের) বিবেচনায় আছে। আমার মনে হয়, আপনারা অতিদ্রুত এ বিষয়ে ব্যাখ্যা পাবেন।’

আরেক প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক বলেন, ‘কোনো সমস্যা যদি হয়, তাহলে রাষ্ট্রপতি হলেন রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পদের অধিকারী। তার কাছে নিশ্চয় নালিশ পাঠানো যেতে পারে এবং তার যথেষ্ট ক্ষমতা আছে, তিনি সেই দিক থেকে সংবিধানের মধ্য থেকে বিবেচনা করতে পারেন। ষোড়শ সংশোধনীর বিষয়ে যে শূন্যতা, সেই শূন্যতার কারণে কোনোকিছুই রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানো যাবে না, এটা ঠিক না।’

গত ১৬ মে, বৃহস্পতিবার বিকেলে আদালতে বিচারাধীন মামলার বিষয়ে সংবাদ প্রচার ও প্রকাশ করা থেকে বিরত থাকতে সাংবাদিকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন একটি বিজ্ঞপ্তি দেয়। সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার মো. গোলাম রব্বানীর স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কোনো ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া ও প্রিন্ট মিডিয়া বিচারাধীন মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন/স্ক্রল করছে, যা অনভিপ্রেত।

ব্যাংক ঋণ সংক্রান্ত বিষয়ে ২০১৭ সালের হাইকোর্টের একটি বেঞ্চের দেওয়া আদেশের বিরুদ্ধে ন্যাশনাল ব্যাংকের একটি মামলায় আপিল বিভাগে শুনানিকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রকাশিত ও প্রচারিত প্রতিবেদন সুপ্রিম কোর্টের নজরে আসার পর এই বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।

প্রিয় সংবাদ/রিমন