ইয়ং গ্লোবাল লিডার ফোরামে পলক। ছবি: সংগৃহীত

ফিনল্যান্ডে জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে কথা বলবেন পলক

কর্মসূচিতে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বাংলাদেশে ঝুঁকি ও করণীয় সম্পর্কে বিশ্বের তরুণ নেতৃবৃন্দের কাছে বিভিন্ন দিক তুলে ধরার পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বাংলাদেশের সাফল্য তুলে ধরবেন পলক।

রাকিবুল হাসান
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৩ মে ২০১৯, ১৪:১৯ আপডেট: ২৩ মে ২০১৯, ১৪:১৯
প্রকাশিত: ২৩ মে ২০১৯, ১৪:১৯ আপডেট: ২৩ মে ২০১৯, ১৪:১৯


ইয়ং গ্লোবাল লিডার ফোরামে পলক। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) বিশ্বে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব ও ভবিষ্যৎ করণীয় ঠিক করতে গ্রিনল্যান্ডের ইলুলিসাত শহরে আজ থেকে শুরু হয়েছে পাঁচ দিনব্যাপী ‘ওয়াইজিএল ইম্প্যাক্ট এক্সপিডিশন গ্রিনল্যান্ড’ কর্মসূচি।

সুইজারল্যান্ডভিত্তিক ইয়ং গ্লোবাল লিডার ফোরামের উদ্যোগে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে নির্বাচিত ২০ জন তরুণ নেতার উপস্থিতিতে গ্রিনল্যান্ডের ইলুলিসাত শহরে এবারের এই জলবায়ু কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এতে উপস্থিত ২০ তরুণ নেতার মধ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকও রয়েছেন।

কর্মসূচিতে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বাংলাদেশে ঝুঁকি ও করণীয় সম্পর্কে বিশ্বের তরুণ নেতৃবৃন্দের কাছে বিভিন্ন দিক তুলে ধরার পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বাংলাদেশের সাফল্য তুলে ধরবেন পলক।

জানা গেছে, বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্বকারী জুনাইদ আহমেদ পলক তার বক্তব্যের মাধ্যমে বিশ্বের তরুণ নেতৃবৃন্দের কাছে বাংলাদেশের জলবায়ু পরিস্থিতি ও বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাবের কথা তুলে ধরবেন। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব সম্পর্কে সরকারি অর্থায়নে ২০০৯ সালেই ‘বাংলাদেশ ক্লাইমেট চেঞ্জ স্ট্র্যাটেজিক অ্যান্ড অ্যাকশন প্লান’ তৈরি ও অনুমোদনের কথাও তুলে ধরবেন তিনি।

তিনি মনে করেন, এই প্লানের মাধ্যমে জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কে বাংলাদেশের কি করতে হবে এবং বিশ্বের কি করণীয় তা ২০০৯ সালেই বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে পেরেছে। জলবায়ু পরিবর্তনের এই স্ট্র্যাটেজিক অ্যাকশন প্লানটি পরিপূর্ণরূপে বাস্তবায়ন করার জন্য তিনি বিশ্ব নেতৃবৃন্দের সহযোগিতাও কামনা করবেন। একইসঙ্গে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির মাধ্যমে জলবায়ু পরিবর্তনের সমস্যাগুলোকে মোকাবিলা করার বিষয়েও বক্তব্য রাখবেন তিনি।

উল্লেখ্য, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবগুলো বিশ্বের তরুণ নেতারা যাতে খুব কাছ থেকেই প্রত্যক্ষ করতে পারেন এবং ভবিষ্যৎ করণীয় ঠিক করতে পারেন, এ কারণে কর্মসূচির ভেন্যু হিসেবে এবার গ্রিনল্যান্ডকেই বেছে নেওয়া হয়েছে। ২৩ মে থেকে শুরু হওয়া ‘ওয়াইজিএল ইম্প্যাক্ট এক্সপিডিশন গ্রিনল্যান্ড’ নামক কর্মসূচিটি ২৭ মে পর্যন্ত চলবে।

প্রিয় সংবাদ/রুহুল