‘মিট দ্য ক্যাপটেনস’ অনুষ্ঠানে বিরাট কোহলি ও সরফরাজ আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত

‘বিব্রতকর’ প্রশ্নের জবাবে যা বললেন কোহলি-সরফরাজ

ভারত-পাকিস্তান প্রসঙ্গ উঠতেই উঠে আসে সেই বিব্রতকর প্রশ্নটি।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৪ মে ২০১৯, ১৯:৫৭ আপডেট: ২৪ মে ২০১৯, ১৯:৫৭
প্রকাশিত: ২৪ মে ২০১৯, ১৯:৫৭ আপডেট: ২৪ মে ২০১৯, ১৯:৫৭


‘মিট দ্য ক্যাপটেনস’ অনুষ্ঠানে বিরাট কোহলি ও সরফরাজ আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) পুলওয়ামার ভয়াবহ জঙ্গি হামলার পর আবার উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ভারত-পাকিস্তানের রাজনৈতিক সম্পর্ক। দুই দেশের রাজনৈতিক উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ে ক্রিকেটেও। এর জের ধরে ভারতে বন্ধ করে দেওয়া হয় পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) সম্প্রচার।

কেবল তা-ই নয়; বিশ্বকাপের মঞ্চে পাকিস্তানকে বয়কটের কথা ভেবেছিল ভারত। এ জন্য ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারতের না খেলার দাবিও ক্রমশ জোরালো হচ্ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই দাবি থেকে সরে এসেছে ভারত। সবকিছু ঠিক থাকলে ১৬ জুন ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামছে বিরাট কোহলির দল। কিন্তু এই ম্যাচের মাঠে নামার আগেই মুখোমুখি দেখা হয়ে গেল দুই অধিনায়কের।

গেল ২৩ মে লন্ডনের দ্য ফিল্ম শেডে অনুষ্ঠিত ‘মিট দ্য ক্যাপটেনস’ অনুষ্ঠানে অংশ নেন বিশ্বকাপের এবারের আসরে অংশ নিতে যাওয়া ১০ দলের অধিনায়ক। সেখানে উপস্থিত হয়ে উপস্থাপক ও সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন তারা। শুধু তা-ই নয়, বিশ্বকাপ নিয়ে হালকা মেজাজে চলে আলোচনা। কিন্তু সেখানে উঠে আসে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার সীমান্ত উত্তাপ ও রাজনৈতিক বিতর্ক।

ভারত-পাকিস্তান প্রসঙ্গ উঠতেই উঠে আসে সেই বিব্রতকর প্রশ্নটি। কোহলির কাছে জানতে চাওয়া হয়, দ্বিপাক্ষিক সিরিজে কেন দেখা হয় না ভারত ও পাকিস্তানের? কেন দুই দেশ নিজেদের মাঠে আয়োজন করতে পারে না বহু আকাঙ্ক্ষিত ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ?

এমন প্রশ্নের উত্তর দিতে আগ্রহ প্রকাশ করেননি পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। কারণ প্রশ্নটা করা হয়েছিল শুধু কোহলিকে। উত্তরটা অবশ্য খুবই ঠান্ডা মাথায় দিয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক।

এ বিষয়ে কথা বলা তার পক্ষে সম্ভব নয় জানিয়ে কোহলি বলেন, ‘আমি এ প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার যোগ্য লোক নই, এটা তো বোর্ডের ব্যাপার। সংবাদ সম্মেলনে এই প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার ক্ষমতা আমাদের দেওয়া হয়নি।’

এরপর কিছুক্ষণ চুপ থাকেন কোহলি। নীরবতা ভেঙে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে নিজের মতামত জানিয়ে কোহলি বলেন, ‘আমার ব্যক্তিগত মতের কোনো দাম নেই এখানে। আমার ব্যক্তিগত মতে কিছু যায়-আসে না!’

বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচটি ঘিরে ভক্ত-সমর্থক ও ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যে কতটা উত্তেজনা বিরাজ করছে তার আঁচ পাওয়া যায় টিকেটের চাহিদা দেখে। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের দর্শক ধারণক্ষমতা মাত্র ২৫ হাজার। কিন্তু ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচটি স্টেডিয়ামে থেকে দেখার জন্য প্রায় পাঁচ লাখ ক্রিকেটপ্রেমী টিকেটের আবেদন করেছেন।

এ জন্য আগে থেকেই সতর্ক অবস্থায় রয়েছে ব্রিটিশ সরকার। এরই ধারাবাহিকতায় ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যেকোনো অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে একাধিক ইংলিশ সংবাদমাধ্যম।

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে কোহলি বলেন, ‘ভক্তরা যেভাবে দেখেন, খেলোয়াড়রা কিন্তু মাঠে সেভাবে খেলে না। খেলা শুরু হলে সবাই পেশাদার আচরণ করে। পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটি আলাদা করে দেখছি না। প্রত্যেক দলই একে অপরকে হারাতে পারে, এটাই সৌন্দর্য। সব দল শক্তিশালী। তাই অন্য কোনো বিষয় নিয়ে ভাবলে মনোযোগে ব্যাঘাত ঘটবে।’

প্রিয় খেলা/আজাদ চৌধুরী