মুক্তিযুদ্ধের উপ-অধিনায়ক একে খন্দকার। ফাইল ছবি

ক্ষমা চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর ‘সাক্ষাৎ’ চান মুক্তিযুদ্ধের উপ-অধিনায়ক

ভুলের জন্য ক্ষমা চেয়ে শেষবারের মতো বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছাও প্রকাশ করেন মুক্তিযুদ্ধের উপ-অধিনায়ক একে খন্দকার।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৭ মে ২০১৯, ১১:৫৮ আপডেট: ২৭ মে ২০১৯, ১৪:৩২
প্রকাশিত: ২৭ মে ২০১৯, ১১:৫৮ আপডেট: ২৭ মে ২০১৯, ১৪:৩২


মুক্তিযুদ্ধের উপ-অধিনায়ক একে খন্দকার। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) ‘১৯৭১ : ভেতরে বাইরে’ বইয়ে ভুল তথ্যের জন্য জাতির কাছে ক্ষমা চেয়েছেন মুক্তিযুদ্ধের উপ-অধিনায়ক এবং সাবেক মন্ত্রী এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) একে খন্দকার (বীরউত্তম)।

বইটির এক জায়গায় উল্লেখ আছে- বঙ্গবন্ধু ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের শেষে ‘জয় পাকিস্তান’ বলেছিলেন।

মূলত এ লেখাটির কারণে তিনি ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। সেই সঙ্গে ‘জয় পাকিস্তান’ শব্দটি ফেলে দিয়ে সংশোধনের জন্য বইটির প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান প্রথমা প্রকাশনীর সহযোগিতা চেয়েছেন।

২০১৪ সালে মন্ত্রিত্ব ছাড়ার পর প্রকাশ করেন নিজের আত্মজীবনী ১৯৭১ : ভেতরে বাইরে। বইটির ৩২ নম্বর পৃষ্ঠায় উল্লেখ আছে, বঙ্গবন্ধু ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের শেষে ‘জয় পাকিস্তান’ বলেছিলেন। ওই তথ্য উল্লেখ করায় সমালোচনার মুখে পড়েন একে খন্দকার।

২৬ মে, রবিবার একটি বেসরকারি টেলিভিশনের এক প্রতিবেদনে একে খন্দকার বলেন, ‘ভুল করেছি যে পাকিস্তান কথাটা বলেছি। ওটা ভুল। আমার ভুল হয়েছে, একেবারে সম্পূর্ণ ভুল। আমি নিজেই জানি না কেন ভুল করলাম।’

নিজের ভুলের জন্য ক্ষমা চেয়ে তিনি বলেন, ‘আমি যে ভুল করেছি তার জন্য আমি ক্ষমা চাচ্ছি।’

বেসরকারি টেলিভিশনের ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়, একে খন্দকার তার ওই ভুলের জন্য ক্ষমা চেয়ে শেষবারের মতো বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছাও প্রকাশ করেছেন।

প্রসঙ্গত একে খন্দকারকে স্বাধীন দেশে বিমানবাহিনীর প্রধানের দায়িত্ব দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। এক-এগারোর পর ‘যুদ্ধাপরাধীদের বিচার’ দাবিতে গঠিত প্ল্যাটফর্মের নেতা ছিলেন তিনি। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট ক্ষমতায় আসার পর তাকে পরিকল্পনামন্ত্রীর দায়িত্বও দেওয়া হয়েছিল।

প্রিয় সংবাদ/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...