ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। ফাইল ছবি

‘ঈদগায় জায়নামাজ ও ছাতা ছাড়া কিছু নয়’

জাতীয় ঈদগা ময়দানে নামাজ আদায় করতে আসা প্রত্যেককে তিন ধাপে তল্লাশি শেষে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে।

আমিনুল ইসলাম মল্লিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩ জুন ২০১৯, ১৭:৪১ আপডেট: ০৩ জুন ২০১৯, ১৭:৪১
প্রকাশিত: ০৩ জুন ২০১৯, ১৭:৪১ আপডেট: ০৩ জুন ২০১৯, ১৭:৪১


ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, ঈদুল ফিতরে সুস্পষ্ট কোনো নিরাপত্তা হুমকি নেই। তবে ঈদগাহ মাঠে প্রবেশে জায়নামাজ ও ছাতা ছাড়া কিছু আনা যাবে না।

৩ জুন, সোমবার রাজধানীর জাতীয় ঈদগা ময়দানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এমন কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে নামাজ আদায় করতে আসা প্রত্যেককে তিন ধাপে তল্লাশি শেষে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে। সঙ্গে জায়নামাজ ও প্রয়োজনে ছাতা ছাড়া কিছু আনা যাবে না।

তিনি বলেন, ‘ঈদে কিংবা ঈদ জামাতে সুস্পষ্ট কোনো নিরাপত্তার হুমকি নেই। তবে বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট বিবেচনায় যথেষ্ট সতর্ক থাকার কারণ রয়েছে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় আমরা সর্বোচ্চ সতর্ক রয়েছি। ঈদকে ঘিরে নিরবচ্ছিন্ন নিরাপত্তাব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, তাই কারো ভীত হওয়ার কারণ নেই।’

তিনি বলেন, ‘শিক্ষা ভবন, মৎস্য ভবন ও প্রেসক্লাবের সামনে আর্চওয়ে, মেটাল ডিটেক্টরের মাধ্যমে সবাইকে তল্লাশির মাধ্যমে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে। এই এলাকায় কেউ গাড়ি নিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন না। এর পরের ধাপে মূল গেটে এবং ঈদগার ভিআইপি জোনের আগে আরও দুই দফা আর্চওয়ের মাধ্যমে তল্লাশি করা হবে।’

ঈদ জামাতে অংশগ্রহণের জন্য আগত মুসল্লিদের জায়নামাজ এবং প্রয়োজনে ছাতা ছাড়া অন্য কিছু না আনার আহ্বান জানিয়ে আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘সবাইকে তল্লাশি করা হবে, এ জন্য যদি গেটে দীর্ঘ লাইন সৃষ্টি হলেও সবাইকে ধৈর্যসহকারে পুলিশকে সহযোগিত করার আহ্বান রইল।’

প্রিয় সংবাদ/আজাদ চৌধুরী