সিলেটে ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে দুদু মিয়া নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। প্রতীকী ছবি

ডাকাত এসেছে বলে মাইকিং, ‘গণপিটুনিতে’ নিহত ১

স্থানীয় জনতা মাইকে ডাকাত এসেছে ঘোষণা দিয়ে মাইকিং করে এবং একজনকে ধরে পিটুনি দিলে তার মৃত্যু হয়।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৩ জুন ২০১৯, ১০:২৫ আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯, ১০:২৫
প্রকাশিত: ১৩ জুন ২০১৯, ১০:২৫ আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯, ১০:২৫


সিলেটে ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে দুদু মিয়া নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। প্রতীকী ছবি

(প্রিয়.কম) সিলেটে ডাকাত সন্দেহে উত্তেজিত জনতার পিটুনিতে দুদু মিয়া (৩৮) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

১২ জুন, বুধবার দিবাগত রাতে নগরের বনকলা পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। দুদু মিয়া স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মী বলে জানা গেছে। তিনি বনকলা পাড়া এলাকার বাসিন্দা। খবর পেয়ে সিলেট এয়ারপোর্ট থানা পুলিশ নিহত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে।

মহানগর পুলিশের এয়ারপোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাখাওয়াত হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ওই স্থান থেকে নিহতের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ও একটি দা জব্দ করা হয়েছে।

স্থানীয়দের বরাতে শাখাওয়াত জানান, ঘটনার সময় তার সঙ্গে থাকা অন্যরা পালিয়ে গেলেও দুদু জনতার রোষানলে পড়ে গণপিটুনিতে মারা যান।

এদিকে স্থানীয়দের ভাষ্য, দুদু দীর্ঘদিন ধরে বনকলা পাড়া এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছিলেন। ঘটনার সময় দেশীয় অস্ত্র হাতে সঙ্গীয় ৪-৫ জনসহ সাদিয়া টেলিকম নামক একটি দোকানে অবস্থান করছিলেন। তখন স্থানীয় জনতা মাইকে ডাকাত এসেছে ঘোষণা দিয়ে মাইকিং করলে তাদের ঘেরাও করে পিটুনি দেয়। এ সময় অন্যরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও ঘটনাস্থলে মারা যান দুদু।

প্রিয় সংবাদ/রুহুল