নুসরাত জাহান রাফী (বামে) ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন (ডানে) ছবি: সংগৃহীত

ফেনীর পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হবে ওসি মোয়াজ্জেমকে

এজন্য পুলিশের একটিদল ঢাকায় আসবে বলে জানা গেছে।

আমিনুল ইসলাম মল্লিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৬ জুন ২০১৯, ১৮:৩৩ আপডেট: ১৬ জুন ২০১৯, ১৮:৩৩
প্রকাশিত: ১৬ জুন ২০১৯, ১৮:৩৩ আপডেট: ১৬ জুন ২০১৯, ১৮:৩৩


নুসরাত জাহান রাফী (বামে) ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন (ডানে) ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেনকে সোনাগজী থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এজন্য পুলিশের একটি দল ঢাকায় আসবে বলে জানা গেছে।

১৬ জুন, রবিবার বিকেলে রমনা বিভাগ উপ-পুলিশ কমিশনার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ডিসি মারুফ হোসেন সরদার এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘রবিবার বিকেল ৪টার দিকে শাহবাগ কদম ফোয়ারা এলাকা থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয় ওসিকে। তার বিরুদ্ধে যে পরোয়ানা রয়েছে তা সোনাগজী থানার। এ কারণে তাকে ওই থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হবে। পরে পুলিশ তাকে আদালতে তুলবে।’

যৌন নিপীড়নের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের নামে ফেনীর সোনাগাজী মাদরাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফীর বক্তব্য ভিডিও করেন ওসি মোয়াজ্জেম। পরে সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়েও দেন তিনি। ফেসবুকে ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে ১৫ এপ্রিল ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালে একটি মামলা দায়ের করেন আইনজীবী সায়েদুল হক সুমন। বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ ও মামলার নথি পর্যালোচনা করে ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেন ২৭ মে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন। এরপরও তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। তিনি আত্মসমর্পণও করেননি।

পুলিশ সদর দফতরের তদন্ত প্রতিবেদনের সুপারিশ অনুযায়ী, গত ৮ মে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে রংপুর রেঞ্জে সংযুক্ত করা হয়। মে মাসের তৃতীয় সপ্তাহে তিনি রংপুর রেঞ্জ অফিসে যোগ দেন। গত কদিন থেকে তার গ্রেফতারি পরোয়ানা নিয়ে ফেনী ও রংপুর পুলিশের ঠেলাঠেলি চলছিল। ঈদের আগে সেখান থেকে নিরুদ্দেশ হন ওসি মোয়াজ্জেম।

প্রিয় সংবাদ/কামরুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...