বাগেরহাটের চিতলমারী হাসিনা বেগম মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী তৃষা মজুমদার। ছবি: সংগৃহীত

‘পড়ার চাপে’ ছাত্রীর আত্বহত্যা

সোমবার সকাল আটটার দিকে ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে সে আত্মহত্যা করে। প্রভাত মজুমদার বলেন, ‘পড়ার চাপ সইতে না পেরে তৃষা আত্মহত্যা করে।’

আমিনুল ইসলাম মল্লিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৭ জুন ২০১৯, ১৭:২৫ আপডেট: ১৭ জুন ২০১৯, ১৭:২৫
প্রকাশিত: ১৭ জুন ২০১৯, ১৭:২৫ আপডেট: ১৭ জুন ২০১৯, ১৭:২৫


বাগেরহাটের চিতলমারী হাসিনা বেগম মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী তৃষা মজুমদার। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ‘পড়ার চাপে’ বাগেরহাটের চিতলমারী হাসিনা বেগম মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী তৃষা মজুমদার (১৪) আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে।

১৭ জুন, সোমবার এমন তথ্য সাংবাদিকদের জানান তৃষার পিতা খড়মখালী গ্রামের বাসিন্দা কালশিরা রাজেন্দ্র স্মৃতি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রভাত মজুমদার।

তিনি জানান, সোমবার সকাল আটটার দিকে ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে সে আত্মহত্যা করে। প্রভাত মজুমদার বলেন, ‘পড়ার চাপ সইতে না পেরে তৃষা আত্মহত্যা করে।’

তৃষার পিতা আরও জানান, পড়ায় আরও মনোযোগী হওয়ার জন্য সকালে তাকে গালমন্দ করেন। এরপর তিনি বিদ্যালয়ে চলে যান এবং তৃষার মা ছোট মেয়েকে বিদ্যালয়ে পৌঁছে দিতে যান। তৃষার মা বাড়িতে ফিরে দেখে ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে তৃষা ঝুলে আছে। মায়ের চিৎকারে প্রতিবেশিরা এসে তৃষাকে নামায়। স্থানীয় চিকিৎসক এসে দেখে সে মারা গেছে।

চিতলমারী থানার পরিদর্শক অনুকুল সরকার জানান, তৃষার ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

প্রিয় সংবাদ/কামরুল