বিশ্বকাপে নিজের অভিষেক ম্যাচেই আলো ছড়ান লিটন কুমার দাস। ছবি: সংগৃহীত

লিটনকে খেলানোর সিদ্ধান্ত ছিল পাপনের! (ভিডিও)

উইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে টিম মিটিং করেন পাপন। সেখানেই মূলত লিটনকে খেলানোর সিদ্ধান্ত হয়।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৮ জুন ২০১৯, ১৮:৩১ আপডেট: ১৮ জুন ২০১৯, ১৮:৩১
প্রকাশিত: ১৮ জুন ২০১৯, ১৮:৩১ আপডেট: ১৮ জুন ২০১৯, ১৮:৩১


বিশ্বকাপে নিজের অভিষেক ম্যাচেই আলো ছড়ান লিটন কুমার দাস। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ দলে ডাক পেয়েছিলেন সাত ক্রিকেটার। এদের মধ্যে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ দিয়েই বিশ্বকাপে অভিষেক হয় পাঁচ ক্রিকেটারের। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই মাশরাফি, সাকিব, তামিমদের সঙ্গে মাঠে নামেন মোহাম্মদ মিঠুন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মেহেদী হাসান মিরাজ, মুস্তাফিজুর রহমান। অভিষেকের অপেক্ষায় ছিলেন লিটন দাস ও আবু জায়েদ রাহী।

পঞ্চম ম্যাচে সুযোগ এলো লিটনের। মূলত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের সিদ্ধান্তে একাদশে সুযোগ পান ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। উইন্ডিজের বিপক্ষে ঐতিহাসিক জয়ের পর বাংলাদেশের একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবি প্রধান। 

১৭ জুন, সোমবার বিশ্বকাপে নিজেদের পঞ্চম ম্যাচে উইন্ডিজের মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। এদিন মিঠুনের পরিবর্তে একাদশে জায়গা পান লিটন। সুযোগ পেয়েই করেছেন বাজিমাত। বিশ্বকাপে নিজের অভিষেক ম্যাচে খেলেছেন ৯৪ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস। এই ইনিংসটি খেলার পথেই চতুর্থ উইকেটে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে ১৮৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান।

সাকিব-লিটনের এই জুটিতে ভর করে উইন্ডিজের দেওয়া ৩২২ রানের লক্ষ্য তাড়া করেও ৫১ বল হাতে রেখেই ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। ওয়ানডে ইতিহাসে এটা বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড। এমন ঐতিহাসিক জয়ের পর থেকেই সাকিব-লিটনের বন্দনায় মেতেছে বিশ্ব ক্রিকেট।

উইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের এই ঐতিহাসিক জয়টা মাঠে বসেই উপভোগ করেছেন নাজমুল হাসান পাপন। ম্যাচ শেষে বের হওয়ার সময় লিটনকে দলে নেওয়ার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমরা সবসময়ই একটা কথা বলে আসছিলাম। যদি সাড়ে তিনশ বা এর বেশি রান করতে হয়, তাহলে আমাদের লিটন দাসের মতো কাউকে দরকার।’

উইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে টিম মিটিং করেন পাপন। সেখানেই মূলত লিটনকে খেলানোর সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানকে খেলানোর ব্যাপারে আগে থেকে পরিকল্পনা ছিল বলে জানান বোর্ড সভাপতি। তার ভাষ্য, ‘এটা আগেই পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু আজকে সেটা কনফার্ম করা হয়। কেননা একটু দ্বিধা ছিল যে, কাকে নামাবে। আমাদের তো আরও প্লেয়ার আছে।’

ম্যাচ শেষে গোটা দেশ যখন জয় উদযাপনে ব্যস্ত তখন ড্রেসিংরুমে ছুটে যান পাপন। ড্রেসিংরুমে ক্রিকেটারদের সঙ্গে কী কথা হয়েছে জানতে চাইলে পাপন বলেন, ‘ক্রিকেটারদের সঙ্গে কি কথা বলেছি ওটা তত গুরুত্বপূর্ণ না। আমি শুধু বলেছি যে, আমার ধারণা ছিল ওরা ৯ উইকেটে জিতবে। সেমিফাইনাল না কোথায় যাচ্ছি, আমি জানি না। আমাদের সবাইকে হারাতে হবে। এই লক্ষ্য নিয়েই আমরা খেলব, এজন্যই এসেছি।’

প্রিয় খেলা/রিমন