প্রতীকী ছবি

ভারতের ফাইভজির দিকে চোখ স্যামসাংয়ের

এর আগে মোদি সরকারের নতুন টেলিকম মিনিস্টার রবিশংকর প্রসাদ জানিয়েছিলেন, আসন্ন ফাইভজি ট্রায়ালে হুয়াওয়েকে অংশগ্রহণের সুযোগ দিলে তা ভারতের জন্য সিকিউরিটি ইস্যু হয়ে দাঁড়াবে।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ২১ জুন ২০১৯, ১৭:৪৩ আপডেট: ২১ জুন ২০১৯, ১৭:৫৩
প্রকাশিত: ২১ জুন ২০১৯, ১৭:৪৩ আপডেট: ২১ জুন ২০১৯, ১৭:৫৩


প্রতীকী ছবি

(প্রিয়.কম) ভারতে নেটওয়ার্কের ব্যবসার পরিধি আরও বিস্তৃত করতে পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করেছে কোরিয়ান প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান স্যামসাং ইলেক্ট্রনিকস। সম্প্রতি ফাইভজি নেটওয়ার্কের বিষয়ে কথা বলতে দেশটির টেলিকম অপারেটদের সঙ্গে স্যামসাংয়ের কর্তাস্থানীয়দের বৈঠক এমন ইঙ্গিত দিচ্ছে।

দ্য কোরিয়া নামে একটি স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, স্যামসাং ইলেক্ট্রনিক্সের নেটওয়ার্ক ডিভিশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ঝেওন কিওন হুনের নেতৃত্বে একটি দল সম্প্রতি ভারত ভ্রমণ করেন।

তারা ভারতীয় মোবাইল নেটওয়ার্ক রিলায়েন্স জিও এবং অন্যান্য অপারেটরের সঙ্গে ফাইভজি নেটওয়ার্ক যন্ত্রাংশের বিষয়ে বৈঠক করেন।

ভারতে ফাইভজি পরীক্ষা এবং ভবিষ্যতে ফাইভ সেবা চালুতে হুয়াওয়েকে সুযোগ দেওয়া হবে কিনা, এ বিষয়ে মোদি সরকার এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি। এর আগে এমন খবর দেশটির গণমাধ্যমে এলো।

গত সপ্তাহে দেশটির প্রভাবশালী এক গণমাধ্যম জানিয়েছে, ভোডাফোন আইডিয়া, ভারতি এয়ারটেল স্যামসাংয়ের সঙ্গে নেটওয়ার্ক যন্ত্রাংশ আমদানির বিষয়ে কথাবার্তা বলেছে।

এদিকে ২০ জুন, বুধবার চীন মোদি সরকারকে হুয়াওয়ের প্রতি সুষ্ঠ ফয়সালার আহ্বান জানিয়েছে। চীন জানিয়েছে ভারত যেনো যুক্তরাষ্ট্রের দ্বারা প্রভাবিত না হয় এবং চীনের ব্যবসায়ীদের প্রতি নিরপেক্ষ এবং অবৈষম্যমূলক আচরণ করে।

এর আগে মোদি সরকারের নতুন টেলিকম মিনিস্টার রবিশংকর প্রসাদ জানিয়েছিলেন, আসন্ন ফাইভজি ট্রায়ালে হুয়াওয়েকে অংশগ্রহণের সুযোগ দিলে তা ভারতের জন্য সিকিউরিটি ইস্যু হয়ে দাঁড়াবে।

প্রিয় প্রযুক্তি/কামরুল