বিএনপি কার্যালয়ের সামনে ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা। ছবি: সংগৃহীত

নয়াপল্টনে ককটেল বিস্ফোরণ, বিদ্যুৎবিহীন বিএনপি কার্যালয়

২২ জুন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ছাত্রদলের ১২ নেতাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৪ জুন ২০১৯, ১৫:০২ আপডেট: ২৪ জুন ২০১৯, ১৫:০২
প্রকাশিত: ২৪ জুন ২০১৯, ১৫:০২ আপডেট: ২৪ জুন ২০১৯, ১৫:০২


বিএনপি কার্যালয়ের সামনে ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের আশপাশ এলাকায় অন্তত পাঁচটি ককটেল বিস্ফোরিত হয়েছে। সদ্য বিলুপ্ত কমিটির বেশ কয়েকজন নেতাকে বিএনপির পক্ষ থেকে বহিষ্কারের ঘোষণা দেওয়ার পরও ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধরা গত কয়েক দিনের ধারাবাহিকতায় নয়াপল্টনে আজও বিক্ষোভ ও মিছিল করেছেন। বিক্ষুব্ধ ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা অবস্থান কর্মসূচি শেষে চলে যাওয়ার সময় সোমবার এ বিস্ফোরণ ঘটে। একটি ককটেল অবিস্ফোরিত অবস্থায় দেখা গেছে।

২৪ জুন, সোমবার দুপুর সোয়া ১টার পরে মুহুর্মুহু এই ককটেল বিস্ফোরণ হয়। তবে এই ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় কারা জড়িত সে সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানা যায়নি।

এ ছাড়াও ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের বিদ্যুৎ–সংযোগ বন্ধ করে দিয়ে নয়াপল্টনে অবস্থান নিয়েছিল। বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে সংগঠনটির সহস্রাধিক নেতাকর্মীর একটি মিছিল নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে জড়ো হয়। এসময় বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতাকর্মীরা কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে কার্যালয়ের কলাপসিবল গেট বন্ধ করে দেন।

বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন কার্যালয়ে ঢুকতে চাইলে তাকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। এ ছাড়া ছাত্রদলের পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ইউনিটের এক নেতা কার্যালয়ে ঢুকতে চাইলে তাকে মারধর করা হয়। অন্যদিকে কাউন্সিলের তারিখ ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়ে ছাত্রদলের পদপ্রত্যাশীরা আজ সকালে মিছিল করেছেন।

২২ জুন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ছাত্রদলের ১২ নেতাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়।

এদিকে গতকাল দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রদলের কাউন্সিলের জন্য ১৫ জুলাই তারিখ ঘোষণা করেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শামসুজ্জামান দুদু।

গত ৩ জুন রাতে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ছাত্রদলের মেয়াদোত্তীর্ণ কেন্দ্রীয় সংসদ বাতিল করা হয়। বিজ্ঞপ্তিতে পরবর্তী ৪৫ দিনের মধ্যে কাউন্সিলরদের মতামতের ভিত্তিতে নতুন কেন্দ্রীয় সংসদ গঠনের কথা জানানো হয়। এর পর থেকেই ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটির একটি অংশ লাগাতার আন্দোলন কর্মসূচি ও বিক্ষোভ শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১১ জুন তারা বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।

প্রিয় সংবাদ/আশরাফ