দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য । ছবি: সংগৃহীত

সাংবাদিককে চিঠি ইস্যুকারী দুদক কর্মকর্তাকে শোকজ

দাবিগুলো বাস্তবায়নের জন্য ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছেন তারা। বাস্তবায়ন না হলে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) সকাল ১০টায় দুদক কার্যালয়ের সামনে ফের সমবেত হবেন সাংবাদিকরা।

আমিনুল ইসলাম মল্লিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৬ জুন ২০১৯, ১৬:৩৫ আপডেট: ২৬ জুন ২০১৯, ১৭:০৮
প্রকাশিত: ২৬ জুন ২০১৯, ১৬:৩৫ আপডেট: ২৬ জুন ২০১৯, ১৭:০৮


দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য । ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) প্রকাশিত সংবাদের ব্যাপারে বক্তব্য দিতে দুই সাংবাদিককে দুই রকম চিঠি ইস্যু করে ডাকায় দায়িত্বে অবহেলার জন্য সেই কর্মকর্তাকে শোকজ (কারণ দর্শানো) করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

২৬ জুন, বুধবার দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য এ তথ্য জানান। তবে কত দিনের মধ্যে নোটিশের জবাব দিতে হবে তা নির্দিষ্ট করে জানাতে পারেননি তিনি।

তিনি বলেন, ‘আমাদের পক্ষ থেকে দুজন সাংবাদিককে ডাকা হয়েছিল। তাদের কাছে পাঠানো চিঠির ভাষা দুরকম হয়েছে। এ বিষয়টি কমিশনের নজরে এসেছে। কমিশন অবগত হওয়ার পর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে দায়িত্বে অবহেলার জন্য শোকজ নোটিশ পাঠানো হয়েছে।’

প্রণব কুমার ভট্টাচার্য বলেন, ‘কোনো মামলায় সহযোগিতা করা সাংবাদিকদের দায়িত্ব। কমিশন কখনও নোটিশ ইস্যু করে না। তদন্ত কর্মকর্তারা তা করে থাকেন। তারা যদি কোনো ভুল করে তাহলে হয় কোর্টে যাবেন, নয়তো কমিশনকে জানাবেন।’

চিঠিটি ২৫ জুন, মঙ্গলবার সাংবাদিক দীপু সারোয়ারকে দেওয়া হয়। ছবি: প্রিয়.কম 

এদিকে চার দফা দাবিতে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) বিরুদ্ধে কর্মসূচি দিয়েছেন সাধারণ সাংবাদিকরা। দাবিগুলো বাস্তবায়নের জন্য ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছেন তারা। বাস্তবায়ন না হলে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) সকাল ১০টায় দুদক কার্যালয়ের সামনে ফের সমবেত হবেন সাংবাদিকরা।

দাবিগুলো হলো−দুদক যে আপত্তিকর ভাষায় চিঠি দিয়েছে তার জন্য দুঃখ প্রকাশ করতে হবে, চিঠি প্রত্যাহার করতে হবে, যিনি চিঠি ইস্যু করেছেন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে এবং দুদক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের অবাধ যাতায়াত নিশ্চিত করতে হবে। ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু জাফর সূর্য সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেন।

সকাল সাড়ে ১০টায় দুদক কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেন সাংবাদিকরা। ছবি: প্রিয়.কম

প্রসঙ্গত, গত ২৩ জুন ‘লন্ডন প্রবাসী দয়াছের অডিও সংলাপে দুদকের ওরা কারা?’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনটি করেন বাংলা ট্রিবিউনের বিশেষ প্রতিনিধি দীপু সারোয়ার। একই বিষয়ে বেসরকারি টেলিভিশন এটিএন নিউজের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ইমরান হোসেন সুমনও একটি প্রতিবেদন করেন। ওই প্রতিবেদনের ব্যাপারে বক্তব্য দিতে দীপু সারোয়ার ও ইমরান হোসেনকে চিঠি ইস্যু করে দুদক। তবে দুইজনকে পাঠানো চিঠির ভাষা ছিল দুই রকম।

প্রিয় সংবাদ/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...