শোয়েব মালিককে গার্ড অফ অনার দিচ্ছেন সতীর্থরা। ছবি: সংগৃহীত

২০ বছরের ক্যারিয়ারের ইতি টানলেন শোয়েব মালিক, তবে...

২০ বছর ধরে ওয়ানডে খেললেও অনেকটা আক্ষেপ নিয়েই এই ফরম্যাট থেকে বিদায় নিয়েছেন শোয়েব মালিক।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০৬ জুলাই ২০১৯, ১৬:২৭ আপডেট: ০৬ জুলাই ২০১৯, ১৬:২৭
প্রকাশিত: ০৬ জুলাই ২০১৯, ১৬:২৭ আপডেট: ০৬ জুলাই ২০১৯, ১৬:২৭


শোয়েব মালিককে গার্ড অফ অনার দিচ্ছেন সতীর্থরা। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) সেমিফাইনালের চার দল অনেকটা চূড়ান্ত হয়ে যাওয়ায় বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচটি রূপ নেয় স্রেফ আনুষ্ঠানিকতায়। নিয়মরক্ষার ম্যাচে শেষ হাসি হেসেছে পাকিস্তান। লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশকে ৯৪ রানে হারিয়েছে তারা।

তবুও শেষ রক্ষা হয়নি পাকিস্তানের। শেষ চারের যোগ্যতা অর্জনের প্রয়োজনীয় শর্তপূরণ না করতে পারায় লিগ পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছে সরফরাজ আহমেদের দল। একইসঙ্গে বিদায় বলেছেন শোয়েব মালিক।

৫ জুলাই, শুক্রবার লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ডে বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে দীর্ঘ ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ইতি টানার ঘোষণা দিয়েছেন অভিজ্ঞ এই পাকিস্তানি অলরাউন্ডার।

বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন শোয়েব মালিক। ওয়ানডে থেকে অবসর নিলেও ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটে খেলে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন পাকিস্তানের জার্সিতে ২৮৭টি ওয়ানডে খেলা অভিজ্ঞ এই অলরাউন্ডার। এমনকি ২০২০ সালে অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও দেখা যেতে পারে তাকে। সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানিয়েছেন ৩৭ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

বিদায়বেলায় আবেগঘন বার্তায় শোয়েব মালিক বলেন ‘আগের সাক্ষাৎকারেই অবসরের বিষয়টি স্পষ্ট করেছিলাম। আজ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের শেষ ম্যাচ ছিল এবং আমি ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা করছি। কয়েক বছর আগেই বিশ্বকাপের পর অবসরের সিদ্ধান্তটা গ্রহণ করেছিলাম। তবে দুঃখের বিষয় হলো যে ফরম্যাটকে একসময় সবচেয়ে বেশি ভালোবাসতাম আজ সেই ফরম্যাট থেকেই অবসর নিতে চলেছি।’

ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে বিদায়ের দিনে ভারাক্রান্ত থাকলেও পরিবারকে সময় দিতে পারবেন ভেবে খানিকটা স্বস্তি পাচ্ছেন শোয়েব মালিক। তার ভাষ্য, ‘একদিক থেকে আবার খুশি হয়েছি। কারণ পরিবারকে আগের চেয়ে অনেক বেশি সময় দিতে পারব, এটা ভেবে ভালো লাগছে। পাশাপাশি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটেও অনেক বেশি মনোনিবেশ করতে পারব।’

বিদায়বেলায় হাস্যোজ্জ্বল শোয়েব মালিক। ছবি: সংগৃহীত

২০ বছর ধরে ওয়ানডে খেললেও অনেকটা আক্ষেপ নিয়েই এই ফরম্যাট থেকে বিদায় নিয়েছেন শোয়েব মালিক। এবারের বিশ্বকাপে মাত্র তিনটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছেন ৩৭ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার। তিন ম্যাচে তার ব্যাট থেকে এসেছে মাত্র ৮ রান। এর মধ্যে দুবারই আউট হয়েছেন রানের খাতা খোলার আগে। এ ছাড়া বল হাতে নিয়েছেন ১ উইকেট।

এজন্য দল থেকেও বাদ পড়তে হয় মালিককে। এমনকি বাংলাদেশের বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচেও একাদশে ছিলেন না তিনি। তবে ম্যাচ শেষে মাঠে প্রবেশ করেন জাতীয় দলের জার্সিতে ২৮৭ ওয়ানডেতে ৭ হাজার ৫৩৪ রান করা ও ১৫৮ উইকেট নেওয়া এই পাকিস্তানি ক্রিকেটার। এরপর সতীর্থরা তাকে গার্ড অফ অনার দেন।

একাদশ জায়গা না পাওয়ার প্রসঙ্গে শোয়েব মালিক বলেন, ‘দলের স্বার্থে ব্যাটিং অর্ডারে যখন যেখানে প্রয়োজন সেখানেই ব্যাট করেছি। কিন্তু এবারের বিশ্বকাপে দুটি খারাপ পারফরম্যান্সের নিরিখে আমাকে বিচার করা হয়েছে। এটা ভেবে কিছুটা খারাপ লাগছে।’

প্রিয় খেলা/আশরাফ